অন্য ধর্মের দেবদেবীকে গালি দেওয়া হারাম!

0
82

সময় সংবাদ বিডি

ঢাকাঃ ইসলাম সত্য, আর অন্য সকল ধর্ম মিথ্যা। এটাই ধ্রুব সত্য, No Doubt at All…..

অন্য ধর্মের উৎসব সম্পর্কে বলতে চাই, আমি পুজামন্ডপে গিয়ে শুভেচ্ছা জানাতে যাবো না আবার ঘরে বসে বা বন্ধু মহলে তাদের দেবদেবীকে গালিও দিবো না।। ধর্ম যার যার উৎসব ও তারা তার কিন্তু রাষ্ট্র সবার তাই যার যার ধর্মের উৎসব তাকে তাকে শান্তিতে পালন করতে দেওয়া উচিৎ।।

সত্য সত্যই। তা চাপা থাকে না, চাপা রাখাও যায় না। একদিন না একদিন তা প্রকাশিত হয়েই যায়।

কিন্ত এই সত্য মানুষের কাছে প্রচার করার কাজটা, অনেক সময়ই বেশ ধৈর্য নিয়ে, ধীরে ধীরে করা উচিৎ। কারণ, সত্য অনেক সময়ই মানুষের মনে বেশ বড় একটা আঘাত হানে। আর মানুষ খুবই আবেগ প্রবণ একটা জীব। আবেগের বশবর্তী হয়ে মানুষ হেন কাজ নাই, যা করতে পারে না। আর সেখানে, সত্যকে অস্বীকার করা খুবই সহজ।

আর সে জন্যই আল্লাহ কুরআনে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নির্দেশ দিয়েছিলেন,

“আপন পালনকর্তার পথের প্রতি আহবান করুন জ্ঞানের কথা বুঝিয়ে ও উপদেশ শুনিয়ে উত্তমরূপে এবং তাদের সাথে বিতর্ক করুন পছন্দ যুক্ত পন্থায়।” [সূরা আন-নাহলঃ ১২৫]

আজকে হঠাৎ করেই ফেসবুকে এমন কতগুলো পেজ চোখে পড়ল, যেখানে “সত্য প্রচারের” জন্য হিন্দু ধর্মের দেবদেবীদের নানাভাবে আক্রমণ করা হয়েছে।

আর দুঃখের সাথে এটাও দেখতে হল, কমেন্ট বক্সে অনেক হিন্দুই আমাদের আল্লাহ্‌ এবং প্রিয় রাসূলকে (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) আক্রমণ করেছেন!

ইসলাম সত্য, আর অন্য সকল ধর্ম মিথ্যা। এটাই ধ্রুব সত্য, no doubt at all।

কিন্ত তাই বলে, অন্য ধর্মের দেবদেবীদের গালিগালাজ করলে কাজের কাজ কি আসলেই কিছু হবে?

কুরআনে তো আল্লাহ বলেই দিয়েছেন,

“আল্লাহকে ছেড়ে যাদেরকে তারা ডাকে তাদেরকে তোমরা গালি দিও না; কারণ এতে তারাও সীমালংঘন করে অজ্ঞতাবশত আল্লাহকে গালি দিবে।” [সূরা আল-আন’আমঃ ১০৮]

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এই যে এত বছর ধরে ইসলাম প্রচার করলেন, এত এত যন্ত্রণা, অত্যাচার নির্যাতন সহ্য করলেন, একটাবারও কি মক্কার মুশরিকদের দেবদেবীদের গালি দিয়েছেন?

আর আমাদের চাক্ষুষ উদাহরণ হিসেবে ডাঃ জাকির নায়েক তো আছেনই। এই যে তাঁর এত এত পিস কনফারেন্স, বিভিন্ন ধর্মের তুলনা নিয়ে তাঁর এত এত লেকচার, কোনখানেই কি তিনি অন্য ধর্মের দেবদেবীদের গালি দিয়েছেন?

আমাদের মাথায় রাখা উচিৎ, আমাদের কাজ শুধু সত্য পৌঁছিয়ে দেওয়া, কাউকে ঘাড় ধরে সত্য মানানো না।

আর এটাও মনে রাখা উচিত, দ্বীন প্রচার করতে গিয়ে আমরা যা যা বলি, যা যা করি, তারও হিসাব কিন্ত আল্লাহর কাছে দিতে হবে!

তাঁর আদেশ না মেনে, তাঁর রাসূলের (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) দেখানো পথ অনুসরণ না করে “দ্বীন প্রচার” করতে গেলে কাজের কাজ তো কিছুই হবে না, বরং নিজেদেরই পরকাল নিয়ে টানাটানি পড়ে যেতে পারে!

লেখক- আবু লাইবাহ

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here