শনিবার , ১৯ অগাষ্ট ২০১৭
ব্রেকিং নিউজ

ইউএনওর বিরুদ্ধে মামলা করা আওয়ামী লীগ নেতা বহিষ্কার

সৈয়দ ওবায়েদ উল্লাহ সাজুস্টাফ রিপোর্টার,সময় সংবাদ বিডি:-বঙ্গবন্ধুর ছবি কার্ডে ছাপানো নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) গাজী তারিক সালমনের বিরুদ্ধে মামলা করা বরিশালের সেই নেতাকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

শুক্রবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার নির্বাচন মনোনয়ন বোর্ডের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন দলের সভাপতি এবং স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ ও উপজেলা পরিষদ নির্বাচন) মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সভা শেষে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানান, সভায় ইউএনও’র বিরুদ্ধে মামলাকারী বরিশাল জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও বরিশাল আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ ওবায়েদ উল্লাহ সাজুকে দল থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। দলীয় গঠনতন্ত্রের ৪৭ এর ক ধারা অনুযায়ী সাজুর বিরুদ্ধে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। একই সঙ্গে তাকে কেন দল থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না- চিঠি দিয়ে তাও জানতে চাওয়া হয়েছে বলেও তিনি জানান।

তারিক সালমান বরিশালের আগৈলঝাড়ার ইউএনও থাকাকালে স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণপত্রে বঙ্গবন্ধুর ছবি বিকৃত করে ছাপিয়েছিলেন অভিযোগ করে- গত ৭ জুন মামলা করেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ওবায়েদ উল্লাহ সাজু। ওই মামলায় সমন জারির প্রেক্ষাপটে নির্ধারিত দিন গত বুধবার আদালতে হাজির হন তারিক সালমান। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বরিশাল মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতের বিচারক মো. আলী হোসাইন। একই বিচারক দুই ঘণ্টা পর ইউএনও তারিকের জামিন মঞ্জুর করেন।

সূত্র জানায়, মনোনয়ন বোর্ডের সভায়- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, কিছু লোক আওয়ামী লীগ হয়ে আমাদের দলে ঢুকে, এ ধরনের অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটিয়ে দল ও সরকারকে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে ফেলে। তাই সবাইকে সাবধান হতে হবে। কাউকে দলে নেয়ার আগে তার সম্পর্কে বিস্তারিত জানা উচিত। তার উদ্দেশ্য কী, সেটাও ভালো করে জানা উচিত। কারও বিষয়ে বিস্তারিত না জেনেও তাকে দলে নিয়ে পদ-পদবি পর্যন্ত দিয়ে দেয়ার মতো ঘটনা ঘটছে, এগুলো যারা করছেন, তারা অমার্জনীয় অপরাধ করছেন। মনে রাখতে হবে, তারা আসেন পদ নিতে, তারা পদ নিয়ে দলের ও সরকারের ক্ষতিই করবেন।

এদিকে সভায় পাঁচ ইউনিয়ন ও এক উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের মনোনয়ন চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ। এর মধ্যে রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার পীরগঞ্জ সদর ইউনিয়নে মো. নূরুল ইসলাম, রায়পুরায় মো. রেজাউল করিম নান্নু ও রামনাথপুরে মো. ছাদেকুল ইসলাম আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার খাড়েরা ইউনিয়নে কবির আহম্মদ খাঁন ও কুমিল্লা সদর দক্ষিণের বাগমারা ইউনিয়নে মো. আবদুল মালেক আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন।

এছাড়া চট্টগ্রামের কর্ণফুলি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ফারুক চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান পদে মো. দিদারুল ইসলাম ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বানাজা বেগমকে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

Print Friendly