ঈদে মিলাদুন নবী কার সুন্নাহ??

0
83

সময় সংবাদ বিডি

ঢাকাঃ প্রচলিত ঈদে মিলাদুন্নবীর আবিষ্কারক হলেন আরবলের অধিপতি বাদশাহ মুজাফফর উদ্দিন কৌকুরী, ৬০৪ হিজরীতে তিনি সর্বপ্রথম এটি আবিষ্কার করেন। তিনি প্রত্যক বৎসর অত্যন্ত ঝাঁকজমকের সাথে এটি পালন করতেন।। এর পেছনে তিনি তৎকালীন প্রায় তিন লক্ষ মুদ্রা ব্যয় করতেন। বাদশাহের এই রকম উদারতার কারণে একদল লোক তার দিকে আকৃষ্ট হয়ে পড়ে। তারপর থেকে প্রতি বছর বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন কর্মকান্ডের মাধ্যমে এটি পালিত হয়ে আসছে। ইহা স্পষ্ট একটি সুস্পষ্ট বেদায়াত কারন রাসূল (সঃ) জীবিত অবস্থায় তা পালন করেন নাই তার চার খলিফা (রাঃ)-গন তা পালন করেন নাই, এমনকই কোন মাজহাবের ঈমাম (রাহঃ)-গনও তা পালন করেন নাই। আর প্রত্যেক বেদায়াতের পরিনাম জাহান্নাম।

নবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেন, “যে ব্যক্তি এমন আমল করবে যার ব্যাপারে আমার শরীতের নির্দেশনা নেই, উহা প্রত্যাখ্যাত।” (মুসলিম হা/৩২৪৩)

তিনি আরো বলেন- ” নিঃসন্দেহে সর্বোত্তম কথা হচ্ছে আল্লাহ্‌র কিতাব, সর্বোত্তম পদ্ধতি হচ্ছে রাসুলুল্লাহ (সাঃ) এর পদ্ধতি। আর নিকৃষ্ট কাজ হচ্ছে শরীয়াতে নতুন কিছু সৃষ্টি করা, এবং প্রত্যেক বিদ’আত হচ্ছে ভ্রষ্টতা। (মুসলিমঃ ৭৬৮)

“রাসুল (সাঃ) আরো বলেছেন-যে আমার সুন্নাহ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিবে সে আমার দলভুক্ত নয়। [বুখারীঃ ৫০৬৩]

অর্থাৎ যে রাসুলুল্লাহ (সাঃ) এর পদ্ধতি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়ে নতুন নতুন ইবাদাত আবিষ্কার করবে অথবা আল্লাহ্‌র নৈকট্যের জন্য নতুন নতুন পদ্ধতি আবিষ্কার করবে সে রাসুলুল্লাহ (সাঃ) এর পদ্ধতিকে তুচ্ছ মনে করল।

✍🏿 আবু লাইবাহ।

 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here