এই কদিন ছিল আনন্দ! আজ থেকে বিষয়টা বিরক্তির দিকে যাচ্ছে

0
195

সময় সংবাদ বিডি-

ঢাকাঃ এই কদিনে একঝাক কিশোর -কিশোরী বা কিশোর বয়সটা যাই যাই আর তারুণ্য আসি আসি। এমন বয়সের ছেলে -মেয়েদের রাস্তায় দেখে মনে হয়েছিল, বাহ্…বাহ্..বাহ্ তোমরাই পার! তোমরাই পেরেছ!এমন কিছু দেখার জন্য হয়তো বহুদিন অপেক্ষায় ছিলাম! খুব ইচ্ছে করছিল সেই দুরন্ত কিশোর -কিশোরীদের বয়সে ফিরে যেতে!

তাদের বন্ধুদের গাড়িচাপা দিয়ে মেরে ফেলার প্রতিবাদ, তারা যে ভাবে করেছে! এটা শুধু প্রশংসনীয়োর উর্দ্ধেও যে টা সে টা হলো অকল্পনীয়!

এই কদিনে বাচ্চা বাচ্চা ছেলেমেয়ে গুলো যা করেছে।
তাতে এক ধরণের আনন্দ ছিল, উচ্ছলসৌন্দর্য ছিল!
বহুদিন ধরে রোগে ভুগা অসুস্থ পরিবহন খ্যাতকে অল্প হলেও তারা সুস্থ করেছে।
মাঝে মাঝে এন্টিবায়োটিক চিকিৎসার চ না জানলেও রোগ সারানোর জন্য নেয়া যায়!
কিন্তু ক্যানসারে আক্রন্তদের চিকিৎসার ভার, তোমরা আর বয়ে নিয়ে যেয়ো না।

এই কদিন ছিল আনন্দ! আজ থেকে বিষয়টা বিরক্তির দিকে যাচ্ছে। বৃষ্টি কাঁদায় হাটু সমান ময়লা পানি ভেঙ্গে,
খেটে খাওয়া মানুষের যাতায়াত ভোগান্তি সত্যি খুব কষ্ট দিচ্ছে আমাকে! সল্প আয়ের মানুষ গুলো যেখানে ১০টাকা ভারা দিয়ে যায় সেখানে বাধ্য হয়ে রিক্সা ভারা দিতে হচ্ছে ৭০টাকা! তাই ছেলেমেয়েদের প্রতি বিশেষ বিশেষ বিশেষ অনুরোধ করছি তোমরা এবার ঘরে ফিরে যাও।

সকল অভিভাবকদের প্রতিও সবিনয় অনুরোধ রইল। তাদের বাচ্চাদের এবার ঘরে ফিরিয়ে আনুন। এই বয়সটাতে তারা নিয়ন্ত্রণহীন হতে খুব বেশি ভালবাসে!

তাই তো কবি সুকান্ত ভট্টাচার্য লিখেছিলেন….
আঠারো বছর বয়সে যে দুর্বার পথে প্রান্তরে
ছোটায় বহু তুফান,
দুর্যোগে হাল ঠিক মতো রাখা ভার
ক্ষত -বিক্ষত হয় সহস্র প্রাণ।
আঠারো বছর বয়স কী দুঃসহ স্পর্ধায় নেয় মাথা তোলবার ঝুঁকি,
আঠারো বছর বয়সেই অহরহ বিরাট দুঃসাহসেরা দেয় উঁকি।
সকল ছেলেমেয়েদের প্রতি শুভ কামনা রইল….. সবার উজ্জল ভবিষ্যৎ কামনা করছি।
নিরাপদ হোক সবার চলার পথ।

(অণু হেমলতা)

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here