কুমিল্লার দেবীদ্বার ইউএনও’র মাধ্যমে প্রধান মন্ত্রী’র বরাবরে ক্ষেতমজুর সমিতির স্মারকলিপি প্রদান

0
313

DEBIDWAR (COMILLA) PIC_- KHATHMOJOR SOMITHI'R 10 DOFA DABI' BASTOBAYONE P.M. BORABORE SAROKLIPI.-18.05.16 (3)

সময় সংবাদ বিডি,আকতার হোসেন (রবিন) :

দেশের ৬ কোটি গ্রামীণ ক্ষেতমজুরদের সারা বছরের কাজের নিশ্চয়তা, পল্লী রেশন চালু, কর্মসূচী ও প্রকল্প লুট-পাট বন্ধ, বাজেটে পর্যাপ্ত বরাদ্দসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম কমাতে হবে

অবিলম্বে পল্লী রেশন চালু, কর্মসূচী ও প্রকল্প লুট-পাট বন্ধ, গ্রামীণ মজুরদের সারা বছর কাজ ও খাদ্যের নিশ্চয়তার জন্য বাজেটে পর্যাপ্ত বরাদ্দসহ বিভিন্ন দাবীতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে ‘বাংলাদেশ ক্ষেতমজুর সমিতি’ দেবীদ্বার উপজেলা কমিটি।
কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে বুধবার সকাল ১১ টায় দেবীদ্বার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদানকালে নেতৃবৃন্দ বলেন বাংলাদেশে বর্তমানে প্রায় ৬ কোটি ক্ষেতমজুর ও গ্রামীণ মজুর যাদের বছরের অর্ধেকেরও বেশী সময় কোন কাজ থাকেনা। চালসহ নিত্যপণ্যের উর্ধমূল্যের কারণে তাই এ সময় তাদের কাটাতে হয় অর্ধাহারে মানবেতর জীবন। দেশের কোটি মানুষের দুর্দশাকে উপেক্ষাকরে দেশকে এগিয়ে নেয়ার চেষ্টা অবান্তর, তাই আসন্ন বাজেটে ক্ষেতমজুর ও গ্রামীণ মজুরদের জন্য পর্যাপ্ত বরাদ্দ রাখতে হবে।
দেবীদ্বার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম পূর্ণপাঠ স্বাপেক্ষে ক্ষেতমজুর সমিতির নেতৃবৃন্দের কাছ থেকে স্মারকলিপিটি গ্রহণ করেন এবং তা যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রেরণের আশ^াস দেন।
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ক্ষেতমজুর সমিতির কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি পরেশ কর, সিপিবি কুমিল্লা জেলা সভাপতি এবিএম আতিকুর রহমান বাশার, ক্ষেতমজুর সমিতির উপজেলা সভাপতি আবুল কাশেম, ক্ষেতমজুর সমিতির উপজেলা সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ খলিলুর রহমান বাবুল, আেব্দুল অদুদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আ. জলিল, শাহ আলম মোল্লা, আ. বাতেন সরকার প্রমুখ।
স্মারকলিপিতে উল্লেখ যোগ্য দাবী সমূহ হলো অবিলম্বে পল্লী রেশন চালু করে ৫টাকা কেজি দরে চাল-আটা, ৩০ টাকা দরে ডাল ও ভোজ্য তেল এবং ১৫ টাকা দরে চিনি, লবন, কেরোসিন সরবরাহ করতে হবে। বিভিন্ন গ্রামীণ কর্মসূচি ও প্রকল্পের দুর্ণীতি, লুটপাট বন্ধ করতে হবে। ১০০ দিনের কর্মসৃজন প্রকল্প পুণরায় চালু করতে হবে এবং দৈনিক মজুরি ৫০০ টাকা নির্ধারন করতে হবে। এনজিও ঋণ মওকুফ করতে হবে, সহজ শর্তে সর্বোচ্চ ৯% সূদে নতুন করে ঋণ দিতে হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here