ক্লিন ইমেজের সর্বজন শ্রদ্ধেয় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা- মোবাশ্বের চৌধুরী

0
1182


নিজস্ব প্রতিবেদক, সময় সংবাদ বিডি-
ঢাকাঃ চলমান সরকারের শুদ্ধি অভিযানে গ্রেফতারকৃত রাঘববোয়ালদের পাশাপাশি অবৈধ ক্যাসিনো বানিজ্য পরিচালনা ও এর নিয়োন্ত্রনে জড়িত বেশকিছু গডফাদারের নাম বিভিন্ন অনলাইন মিডিয়ায় ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ হতে থাকে।

সম্প্রতি নামসর্বস্ব একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে অবৈধ ক্যাসিনো গডফাদারদের নামের সাথে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও ডিএনসিসির ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আলহাজ্ব মোবাশ্বের চৌধুরীর নাম জড়িয়ে সংবাদ প্রকাশ করে।

বর্তমান সরকারের শুদ্ধি অভিযানকে ঘিরে নামসর্বস্ব গুটিকয়েক অনলাইন নিউজ পোর্টালে বিভ্রান্তিকর ও মনগড়া তথ্য সংবলিত সংবাদ প্রচারনার কারনে অনলাইন ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম গুলোর প্রতি জনগণের আস্থা অনেকাংশে কমে যাচ্ছে।

এতে করে আগামীর ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে সরকারের  সকল উদ্যোগে শংকা সৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তাই এখনি আমাদের সকল বিভ্রান্তিকর পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে হবে।

প্রকাশিত উক্ত সংবাদের সুত্র ধরে,অনুসন্ধানে নামে সময় সংবাদ.কমের প্রতিবেদক।

সরেজমিনে জানা যায়, ক্ষমতাসীন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আলহাজ্ব মোবাশ্বের চৌধুরী এলাকায় ক্লিন ইমেজের সর্বজন শ্রদ্ধেয় ব্যক্তি ও খুবই পরিশ্রমী একজন কাউন্সিলর, খুবই সাধারন চলাফেরা করেন সকলের সাথে। তথাকথিত ওয়ান ইলেভেনের সময় জননেত্রী শেখ হাসিনা প্রশ্নে তিনি ছিলেন অপ্রতিরোধ্য একজন মুজিব সৈনিক। এর জন্য তাকে ভোগ করতে হয়েছে মর্মান্তিক নির্যাতন। ছাত্র রাজনীতি থেকে গড়ে ওঠা এই নেতা চারদলীয় জোট সরকারের আমলেও হয়েছেন কারানির্যাতনের শিকার। তবু্ও তিনি কখনও অন্যায়ের সাথে আপোষ করেননি।

মহানগরের একপ্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে রাতদিন পরিশ্রম করে চলেছেন। সাংগঠনিক দক্ষতায় তৈরি করেছেন লক্ষ লক্ষ মুজিব আদর্শের স্বেচ্ছাসেবক লীগ কর্মী বাহিনী।

তাকে জড়িয়ে এমন সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে আলহাজ্ব মোবাশ্বের চৌধুরী সময় সংবাদ.কমকে বলেন, ইয়ংমেন্স ক্লাব,ওয়ান্ডার্স ক্লাব,মোহামেডান ক্লাব,আরামবাগ ক্লাব,কলাবাগান ক্লাব,ফুওয়াং ক্লাব সহ কোন ধরনের অবৈধ বা দেশের জন্য ক্ষতিকারক এমন কোনো ক্লাব বা সংস্থার সাথে আমার কোনো ধরনের সম্পৃক্ততা নেই বা পূর্বেও কোনোদিন ছিলনা।

এদিকে, সরকারের এই শুদ্ধি অভিযানকে সাধুবাদ জানিয়ে এলাকার অনেকেই বলেন- কোনো ধরনের চক্রান্তের শিকার হয়ে গণমাধ্যম বা অনলাইন মিডিয়াতে বিভ্রান্তি মূলক কোনো সংবাদ প্রকাশ করে কারো সন্মানহানি না করে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ করতে হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here