তোমার জন্য

0
25

কবিসময় সংবাদ বিডি-ঢাকা:-

নাটোরের বনলতা সেন নই বলে

তুমি জীবনানন্দ হতে পারোনি,

অথচ হাজার নক্ষত্রের ভীড়ে আমি

তোমাকেই খুঁজে নিয়েছি সূর্যকুমার।

শ্রাবস্তীর কারুকার্যের নেশা

লেগে থাকে তোমার চোখে – এ

আমি খুব সহজেই বুঝতে পারি,

অথচ তোমার নেশাতুর চোখের

তারায় আমি ভাসতে

দেখেছি আমার মুখচ্ছবি।

এ তোমার ক্যামন অভিসার সূর্যকুমার?

তোমার আদিগন্ত বিস্তৃত কল্পরাজ্যে

কতবার কামিনী প্রেয়সী

রূপে স্থাপন করেছো আমাকে,

যতবারই উঠতে গেছি আসন

ছেড়ে তোমার উদগ্র বাহুডোরে

বন্দী করেছো দস্যুর মত।

তোমার প্রতিটি নিঃশ্বাসে ছিলো

আমাকেই দগ্ধ করার

সাড়ম্বর আয়োজন।

আমি বন্দিনী সূর্যকুমার,

তোমার প্রেমের কারাগারে

নিষ্পন্দ প্রাণটি আমার

কেবলই বৃথা হাপিত্যেশ করে।

তোমার বুকের জমিনে

প্রতিদিন খুঁড়ছি কবর তোমার

আবেগোত্থিত পেয়াদারা প্রতিদিন

টেনে হিঁচড়ে নামায় সে কবরে।

তোমার প্রেমের কারাগারে

আমি স্বেচ্ছাবন্দিনী সূর্যকুমার।

জীবনানন্দ আমি হতে দেবোনা

তোমাকে বনলতা সেনের

মায়ার মোহে আমি বন্দী

করবোনা তোমায়।

হাজার নক্ষত্রের ভীড়ে খুঁজে

পাওয়া সূর্যকুমার আমার

শতজনমের আরাধ্য দেবতা এক।

লেখক-তানিয়া সুলতানা শানু

Print Friendly, PDF & Email