দুর্গাপুরে কৃষকের কষ্টেরসোনালী ধানের শীষ  কাটছে ইঁদুরে

0
61

এস এম শাহাজামাল,দুর্গাপুর :

রাজশাহী দুর্গাপুর উপজেলায় এবার লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি বোরো আবাদ হয়েছে। মাঠ জুড়ে সবুজ ধানের দোলা। কোথাও সবুজের মাঝে উকি দিচ্ছে সোনালী ধানের শীষ। এক বুক আশা নিয়ে যখন কৃষক মাঠের ভালো ফলনের স্বপ্ন দেখছেন, তখনই সে স্বপ্ন যেন মিলিয়েই যেতে বসছে ইঁদুরের উপদ্রবে। কৃষকের কষ্টের ফসল সাবাড় করে চলেছে ইঁদুর। ইঁদুরের উপদ্রব যেন চিন্তায় ফেলে দিয়েছে দেবীপুর, নামদরখালি, বখতিয়ারপুর,কানপাড়া, আমগ্রাম, শানপুকুরিয়া,বেলঘরিয়া এলাকার জমির মালিক ও বর্গাচাষীদের।

সরেজমিনে দেবীপুর এলাকার বোরোর ক্ষেতে গিয়ে দেখা যায়, ইঁদুরে কেটে দেয়া ধান গাছগুলো সরিয়ে ফেলার কাছ করছেন অনেক কৃষক। এ সময় সাইফুল ইসলাম নামে ৩২ বছরের কৃষক বলেন, তার ৭ বিঘা বোরো ক্ষেত্রের অন্তত ১বিঘা ইঁদুরে ধান কেটে ফেলে দিয়েছে। ইঁদুরে যেভাবে ধান কাটছে, তাতে বিষ দিয়েও কাজ হয় না।

এমন আগে হয়েছিল কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ২০ বছর থেকে কৃষি কাজ করছি। ইঁদুরে একটু কাটে ধান কিন্তু এবার শিষ ফুটার আগে থেকেই ইঁদুরে ধান গাছ ও শীষ কাটতে শুরু করেছে। কোন ভাই ইঁদুরের হাত থেকে রক্ষা করা যাচ্ছে না। তবে এত বেশি কোনো বারই কাটেনি। এ সময় তিনি তার জমির বিভিন্ন অংশ ঘুরে ঘুরে ইঁদুরে কেটে দেয়া ধান গাছ দেখান।উপজেলার পাশে শালঘড়িয়া গ্রামের মাজেদ জানান, তিনি এবার তিন বিঘা জমিতে বোরোর আবাদ করেছেন। কিন্তু ইঁদুর যেভাবে ধানের গাছ কেটে দিচ্ছে তাতে ফলন নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন।পৌর এলাকার দেবীপুর গ্রামের জান্নাত আলী জানান, তার জমিতেও ইঁদুরে ধানের গাছ কেটে দিয়েছে। ইঁদুর মারার জন্য জমিতে দেয়া বিষ বৃষ্টির পানিতে ধুয়ে পুকুর বা খালে গিয়ে পড়ায় উল্টো মাছ মরে  যাওয়ার আশঙ্কায় বোরোর আবাদে বিষ প্রয়োগ করতে ভয় পাচ্ছে। তার পরে তারা বিষ ব্যবহার করেছে। জমিতে এখনো ধানের শিষ ফুটেনি, তারপরও ইঁদুরে তার জমির ধানের অনেক গাছ কেটে দিয়েছে। তিনি বলেন, বিঘাতে ৫ কাঠা থেকে ১০ কাঠা জমির ধানের গাছ নষ্ট করেছে ইঁদুরে। বিষ দিয়েও তেমন উপকার হচ্ছে না।

জয়নগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সমসের আলী জানান, তার ইউনিয়নের অনেক কৃষকের মাঠের ধান ইঁদুরে কেটে দিচ্ছে। বেশ কিছু দিন থেকে এ নিয়ে নিয়ে উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তাকে বিষয়টি জানানোর জন্য কৃষকরা বলেছে। আমি কৃষি কর্মকুার সংগে দেখা করে বিষয়টা জানাবো এবং দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য অনুরোধ করবো বলে জানান।

এই বিষয়ে দুর্গাপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মশিউর রহমান জানান, ইঁদুরের ধান গাছ কেটে দেওয়ার বিষয়টি তার জানা নেই। তবে বিষয়টি খুজ নিয়ে ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান। কৃষকদের পরামর্শ দেয়ার জন্য উপসহকারি কৃষি কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here