দূর্ভেদ্য শিকার জালে আটকা পড়ল কি বিবেক

0
405

সময় সংবাদ,বিডি

কবিতাঃ বিচ্ছিন্ন প্রলাপ।

দূর্ভেদ্য শিকার জালে আটকা পড়ল কি বিবেক

অথবা হৃদপ্রকোষ্ঠে উর্ণনাভ স্থায়ী আসন?
মুক্তিস্বাদ তবে কোন দূর পরাহত?

নিজেকে গোলাপ কুঁড়ি ভাঁজমত খুলে খুলে
প্রকাশ আনন্দ অন্যতে কমই তো
বেশ পরিতৃপ্তি ঢেঁকুর ওতে
বিশেষত প্রিয়জন সান্নিধ্য স্পর্শ।
এই যেমন, এখন যদি বলি খুব ইচ্ছে করছে–
প্রিয় হাতটি মুঠোবন্দী করে
চলো জল জোছনায় বসি মুখোমুখি,
তুমি ঠিক আপাদমস্তক খুশিতে চমকাবে,
অথচ বলা হয় না।কেনো হয় বা হয় না!
দুটোতেই উপযুক্ত কার্যকারণ,
কোনটি অদৃশ্যমান অথবা সময় ক্ষতের শাসন
কিন্তু ইচ্ছে শিশুরা জেগে ঘুমায় স্বপ্নবন্দী
আর শূন্যে ছোঁড়ে বাড়ন্ত অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ,
এভাবেই মোহেরা আবর্তিত ঘড়ি কাঁটায়।
সময় স্থির নয়, বয়েই চলে,
ফিরে আসে না নদীর মত।
কেবল চলতি পথে পড়ে রয়
কিছু প্রয়োজনীয় প্রয়োজন অপূরণে,
ক্ষতি হয়, হয়েই যায়
তবু বিবেকের কাঠগড়ায় দাঁড়ায় না সত্তা,
ঠুলি পড়া চোখে কেবলই হাতড়ে খোঁজে প্রিয়সুখ।
এবার তবে প্রস্তুত থাক বিসর্জন বেদী
আট কুঠুরী দরজায়!
মহাপ্রভু, সম্মুখ প্রস্তুত রেখো মহাকাল
আর আমার আলোক ইচ্ছেবেলা।

লেখক ,আফরোজা জেসমীন মায়া।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here