রবিবার , ১৯ নভেম্বর ২০১৭
ব্রেকিং নিউজ

দেশে ব্যাংকগুলোতে লুটপাটের মহোৎসব চলছে:রিজভী

স্টাফ রিপোর্টার,সময় সংবাদ.কম–ঢাকাঃদেশের ব্যাংকিংখাতে নৈরাজ্য ও দুর্নীতি মহামারি আকার ধারণ করেছে বলে অভিযোগ  করেছেন বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভীর। তিনি বলেছেন, ‘ব্যাংকগুলোতে লুটপাটের মহোৎসব চলছে।’

রোববার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন দলের এই জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব।

তিনি বলেন, ‘রাষ্ট্রায়ত্ত সব বানিজ্যিক ব্যাংক তথা-সোনালী, রূপালী, অগ্রণী, জনতা, বেসিক ব্যাংকের পর কৃষি ব্যাংকে ব্যাপক লুটপাটও প্রমাণিত, ঋণ জালিয়াতির খবরগুলো প্রকাশিত হচ্ছে। সর্বশেষ এনআরবি কর্মাশিয়াল, ফারমার্স ব্যাংকের দুর্নীতি ও ঋণ জালিয়াতির খবর প্রকাশ হওয়ার পর আঁতকে উঠছেন গ্রাহকরা। ব্যাংকিংখাতে ভয়াবহ লুটপাটে দেশব্যাপী সাধারণ মানুষের  মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।’

রিজভী বলেন, ‘সরকারি-বেসরকারি মিলে দেশে যে ৫৭টি ব্যাংক রয়েছে তার মধ্যে প্রায় ৫৬টি ব্যাংকেই পড়েছে সরকারের কালো থাবা। ক্ষমতাসীন দলের নেতা-কর্মীদের লুটপাটের সুযোগ করে দিতে যে ঋণ জালিয়াতির ঘটনা এসব ব্যাংকে ঘটেছে তা রীতিমত আঁতকে ওঠার মতো। তারা ঋনের নামে হাজার হাজার কোটি টাকা নিয়ে সে টাকা পাচার করে দিয়ে বিদেশে বাড়ি বানাচ্ছে, গড়ে তুলছে সেকেন্ডহোম আর বেগম পল্লী।’

ব্যাংকিং খাতের পাশপাশি অন্যান্য আর্থিকখাতেও নৈরাজ্য চলছে দাবি করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘দেশের এমন কোনো সেক্টর, এমন কোন খাত আছে যেখানে ক্ষমতাসীনদের থাবায় ক্ষতবিক্ষত হয়নি। লুটের রাজত্ব কায়েম করে গোটা দেশকে ভোটারবিহীন সরকার চিবিয়ে গিলে ফেলেছে। আর এর খেসারত দিচ্ছে সাধারণ মানুষ।’

তিনি বলেন, ‘যেভাবে দিন দিন বেকার সংখ্যা বাড়ছে, যেভাবে বিনিয়োগকারীরা তাদের বিনিয়োগ বন্ধ করে দিয়েছেন, যেভাবে রেমিট্যান্স প্রবাহ কমছে, গার্মেন্টসসহ সকল রপ্তানি পণ্যে যেভাবে ধস নামছে, যেভাবে হাজার হাজার প্রবাসী বিদেশ থেকে ফেরত আসছে এ অবস্থা চলতে থাকলে তাতে দেশে মহাদুর্যোগ নেমে আসবে।’

‘গণমাধ্যমে খবর বেরিয়েছে খরচের চাপে সঞ্চয় ভেঙে খাচ্ছেন শহরের মানুষ। আরেক পত্রিকায় লিখেছেন ঋণ করে ধার করে চলছে গ্রামের মানুষ। এসব খবরে সেই ৭৪-এর দুর্ভিক্ষের আলামতগুলো স্পষ্ট হচ্ছে। কারণ অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ক্রমেই মানুষের ক্রয় ক্ষমতা থেকে  অনেক দূরে সরে গেছে’, বলেন রিজভী।

Print Friendly