দেশে লবনের কোনো ঘাটতি নেই

0
136

জসীম ভুইয়া,সময় সংবাদ বিডি-ঢাকা:কৃত্রিম সংকট তৈরির চেষ্টা সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে,পরিকল্পিতভাবে গুজব ছড়ানো হচ্ছে। বর্তমানে ছয় লাখ মেট্রিক টনের বেশি লবণ মজুদ রয়েছে দেশে। সম্প্রতি ছেলেধরা গুজব থেকে শুরু করে ফেনীতে মাদ্রাসাছাত্রীকে পুড়িয়ে মারা,বরগুনায় কলেজছাত্রকে হত্যা, বুয়েটের ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা,হঠাৎ করে পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণহীন,সবশেষ লবণ সংকটের আতংক তৈরি করা হয়েছে।

তবে,তাৎক্ষণিকভাবে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে,দেশে লবনের কোনো ঘাটতি নেই। লবণের দাম কেউ বাড়তি চাইলে এবং লবণ নিয়ে গুজব ছড়ানো হলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়,সরকার ও আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের নেতারা জানান,সিন্ডিকেটের মাধ্যমে পেঁয়াজের কৃত্রিম সংকট তৈরি দাম অস্বাভাবিক বাড়ানো হয়েছে।

সরকারকে বিভিন্নভাবে বিব্রত করা ও বেকায়দায় ফেলার জন্য বিভিন্নভাবে চক্রান্ত হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে বারবার গুজব ছাড়ানোসহ বিভিন্ন ধরনের সংকট তৈরির চেষ্টা হচ্ছে। এসব পরিকল্পিত ষড়যন্ত্রের সঙ্গে বিএনপি-জামায়াত যুক্ত বলে মনে করছেন তারা।

আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা আরো জানান,রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের কোনো ধরনের আন্দোলন মোকাবিলা করতে না হলেও একের পর এক সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছে সরকার। তবে এ সমস্যাগুলোকে কোনো পক্ষ থেকে তৈরি করা কৃত্রিম সংকট বলে মনে করছেন ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ ও সরকারের নীতিনির্ধারকেরা।

এসব সংকট তৈরির সঙ্গে বিএনপি-জামায়াতের সম্পৃক্ততা রয়েছে বলে অভিযোগ তাদের। তারা জানান,গত ৭ জানুয়ারি আওয়ামী লীগ টানা তৃতীয়বারের মতো সরকার গঠনের পর এখন পযন্ত রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের কোনো চাপ বা আন্দোলনের মুখোমুখি হতে হয়নি সরকারকে। সরকারের ওপর চাপ তৈরি হবে এমন কোনো কর্মসূচিও দিতে পারেনি সরকারবিরোধী কোনো রাজনৈতিক দল।

তবে,প্রতিকূলতার শেষ নেই সরকারের। একের পর এক বিভিন্ন ধরনের সমস্যা মোকাবিলা করতে হচ্ছে,সরকার পক্ষের দাবি,বারবার বিভিন্ন সংকট তৈরির চেষ্টা হলেও শক্ত হাতে সব কিছু নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। কিছু অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটলেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে যায়নি।পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকার সক্ষম হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here