নারী-জগওারিনী

0
214

 

সময় সংবাদ বিডি-

ঢাকাঃ লেখা: সৃষ্টিকর্তার এক বিস্ময়কর সৃষ্টি নারী। ‘নারী’ শব্দটি শুধুমাত্র দুটি অক্ষরের মিলিত রুপ নয়, এটি সৃজনশীলতার প্রতীকও। একজন নারী যেমন সৃষ্টি করতে পারেন ঠিক তেমনি প্রয়োজনে ধ্বংস করতেও পিছপা হোন না। আমাদের পুরুষশাসিত সমাজে নারীদের ভিন্নরূপ দেখতে পাই, মা, বোন, স্ত্রী ও মেয়ের। শুধু একটি রুপ পুরুষদের কাছে নারীরা পায় না সেটি হলো ‘মানুষরূপ’। একজন নারীর নিজস্বসত্তা বলতে কিছু থাকে না। প্রকৃতির চিরচায়িত নিয়মে একজন নারীকে সবসময় অন্যের কথা ভেবে চলতে হয়। বিয়ের আগে বাবা, মায়ের বাধ্য মেয়ে হয়ে, আর বিয়ের পর স্বামী, শশুর-শাশুরীর বাধ্য বউ হয়ে। কেউই কখনো তাদের ইচ্ছার কথা জানার প্রয়োজন মনে করে না। পুরুষশাসিত সমাজে একজন নারী কখনো তার প্রাপ্য মর্যাদা পান না। অনেক সময় পুরুষের মুখে একটি কথা শুনা যায় সেটি হলো, ‘নারী নাকি মায়ের জাত’ এখানে আমার একটু আপত্তি আছে, সত্যি কি একজন নারী মায়ের জাত? যদি সেটি হয়ে থাকে, তাহলে কেনো একজন নারীকে রাস্তায় গণধর্ষনের স্বীকার হতে হয়? কেনো তাকে লাঞ্চিত হতে হয় ওমন অসহায় ভাবে? তখন কি তাদের মনে হয় না তারা নিজেদের মায়ের সাথে নোংরামিটা করছে। অনেক কে আবার বলতে শুনা যায় যে, পোশাক ঠিকমতো পরেনি বলেই তাকে ধর্ষণের স্বীকার হতে হয়েছে। আজ পযর্ন্ত তো এটা শুনলাম না যে, একজন পুরুষকে ধর্ষন করা হয়েছে পোশাকের কারণে। একজন নারীর সবকিছুতেই বাধা, কৈশোর থেকে শুনে আসতে হয় যে, তুমি মেয়ে এই কাজ করতে পারবে না, ঐ কাজ করতে পারবে না ইত্যাদি। সবসময় একটা চাপ ও গণ্ডির মধ্যে রাখা হয় নারীদের। কোনো প্রয়োজনে একজন নারী যখন রাত করে বাসায় ফিরেন তখন তো তার উপর আমাদের সমাজ নতুন একটি নাম বসিয়ে দেয় সেটি হলো ‘নষ্টা মেয়ে’। কিন্তু অন্যদিকে একজন পুরুষ বা ছেলে যদি দুদিন পর বাসায় আসে তাকে কেউ আঙ্গুল দেখিয়ে বলে না যে ছেলেটি ‘নষ্ট ছেলে’। নারী শুধুই একজন ‘নারী’ কখনো একজন মানুষ হতে পারেন না। আর আমাদের পুরুষশাসিত সমাজে কখনো একজন ‘নারী’, মানুষ হওয়া সম্ভব নয়। নারী কেবলই একজন নারী’ “নারী শুধুই নারীর জাত”। 

লেখিকা-তান্নি নুর-সিলেট থেকে। 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here