নিখোঁজের সাত মাস পর তিন খণ্ড লাশ উদ্ধার

0
53

নিখোঁজের ৭ মাস পর ব্যবসায়ীর তিন খণ্ড লাশ উদ্ধার - জাতীয়সময় সংবাদ.কম,সাভার:-সাভারে নিখোঁজের সাত মাস পর বিল্লাল হোসেন (৫৫) নামে এক ইট ব্যবসায়ীর তিন খণ্ড করা লাশ উদ্ধার করেছে র‌্যাব। এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে দুজনকে আটক করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার উত্তর বড়ওয়ালিয়া গ্রামে এনায়েত উল্লার বাগান বাড়ি থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত দা ও চাকু জব্দ করে র‌্যাব।

নিহত বিল্লাল মানিকগঞ্জের সিংগাইর থানার বরন্দী কাস্তা গ্রামের মৃত গাহের আলীর ছেলে। তিনি ধামরাইয়ের বাথুলি এলাকার আহাদ ব্রিকসে ইট ও মাটির ব্যবসা করতেন।

হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আটকরা হলেন- মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া থানার চরতিল্লী গ্রামের মৃত খবির উদ্দিনের ছেলে নাসির উদ্দিন দিপু ও নাটোরের সিংড়া থানার ডাহিয়া গ্রামের বাদল হকের মেয়ে মুর্শিদা আক্তার শিউলি (৩৪)।

র‌্যাব জানায়, ১৩ এপ্রিল কাজ থেকে ফেরার পথে নবীনগর এলাকায় নিখোঁজ হন বিল্লাল। এ ঘটনায় ১৫ এপ্রিল তার স্ত্রী রোকেয়া বেগম ধামরাই থানায় সাধারণ ডায়েরি (নং-৬৫২) করেন। পরে বিল্লালের মোবাইল ফোন ট্রাক করে হত্যাকারীদের চিহ্নিত করা হয়। তাদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী মাটিচাপা অবস্থায় বিল্লালের লাশ পাওয়া যায়। তাকে কুপিয়ে হত্যার পর লাশ তিন টুকরা করে ফেলে হত্যাকারীরা।

লাশ পাওয়া যাওয়া বাগান বাড়িটির মালিক ধানমন্ডি ল্যাবএইড হাসপাতালের অর্থ ও হিসাব বিভাগের জিএম এনায়েত উল্লাহ। তিনি বলেন, “আমি ঢাকায় থাকি। নাছির আমার বাড়ির কেয়ারটেকার ছিলেন। এক মাস আগে গরু চুরির ঘটনায় তাকে তাড়িয়ে দেয়া হয়। সে কেন ওই ব্যবসায়ীকে এখানে এনে হত্যার করেছে তা আমার জানা নেই।”

র‌্যাব-৪ নবীনগর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর আব্দুল হাকিম জানান, ব্যবসায়ী বিল্লাল এক লাখ টাকাসহ নিখোঁজ হন। তার মোবাইলফোন ট্রাকিং করে তার বন্ধু হত্যাকারী নাসিরকে সনাক্ত করা হয়। তিনি জিজ্ঞাসাবাদে বিল্লালকে অপহরণ ও হত্যার কথা স্বীকার করেছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here