শুক্রবার , ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭
ব্রেকিং নিউজ

নিরপেক্ষ নির্বাচন আদায়ে সরকারকে বাধ্য করতে হবে:ফখরুল

Image result for নিরপেক্ষ নির্বাচন আদায়ে সরকারকে বাধ্য করতে হবে:ফখরুলসময় সংবাদ বিডি,বরিশাল:-বর্তমান সরকার সহজে নিরপেক্ষ নির্বাচন দেবে না উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, তারা সহায়ক সরকারের দাবিও মেনে নেবে না। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে দুর্বার আন্দোলনের মাধ্যমে জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনতে হবে। নিরপেক্ষ নির্বাচন আদায়ে সরকারকে বাধ্য করতে হবে।

বুধবার বরিশালে জেলা (দক্ষিণ) বিএনপির সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

নগরীর অশ্বীনি কুমার টাউন হলে জেলা বিএনপি সভাপতি এবায়েদুল হক চান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বর্তমান সরকার বলছে যে সংবিধানের বাইরে কিছু হবে না। এই সংবিধান তো আপনারা তৈরি করেছেন। জনগণ তো আপনাদের কোনো ম্যান্ডেট দেয়নি। বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়ে সংবিধান সংশোধন করে এই সংবিধান বানিয়েছেন। এই সংবিধান জনগণের ইচ্ছার প্রতিফলন নয়।’

বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে দমন নীতির অভিযোগ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘বর্তমানে সবচেয়ে বেশি দমন নীতি চলছে। সামনে নির্বাচন আসছে। তাই এই দমন নীতি। কিন্তু জনগণ বলছে যে ২০১৪’র মতো আর কোনো নির্বাচন তারা হতে দেবে না। ৭১’র মুক্তিযুদ্ধে বুকের তাজা রক্ত দিয়ে আমরা দেশ স্বাধীন করেছি। এই দেশে আর কোনো একদলীয় নির্বাচন হতে দেয়া হবে না।’

তিনি বলেন, দেশের কোনো রাজনৈতিক দল একদলীয় নির্বাচন করার ক্ষেত্রে একমত নয়। প্রতিটি রাজনৈতিক দল নিরপেক্ষ নির্বাচন চায়। আপনি (আওয়ামী লীগ) একদলীয় নির্বাচন করবেন? র‌্যাব পুলিশ দিয়ে ভোট দখল করে নির্বাচন করবেন? তা আর এই দেশের জনগণ মানবে না।’

ফখরুল বলেন, ‘বিএনপি এদেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছে। বহুদলীয় গণতন্ত্র চালু করেছে। সংবাদপত্রের স্বাধীনতা নিশ্চিত করেছে। কিন্তু বর্তমান সরকার আবার সেই নীল নকশা বাস্তবায়ন করতে চায়। ভিন্ন আঙ্গিকে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েম করতে চায়। আবার বাকশাল ফিরিয়ে আনতে চায়।

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ৩৬টি মামলা’র কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘বিএনপি গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্যে লড়াই করে। মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্যে লড়াই করে। আজ যখন আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রকে ধ্বংস করছে, জগদ্দল পাথরের মতো বুকে চেপে বসেছে তখনও বিএনপি গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার লড়াই করে যাচ্ছে। আজ দেশ নেত্রীর বিরুদ্ধে ৩৬টি মামলা দেয়া হয়েছে। তবু তিনি পিছু হটেননি। তিনি গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার লড়াই করে যাচ্ছেন।

দলের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘ঐক্যের কোনো বিকল্প নেই। কোনো ব্যক্তির পক্ষে নয়, দলের পক্ষে থাকতে হবে। দল বাদ  দিয়ে কোনো ব্যক্তির পক্ষে নামলে কিংবা কোনো ব্যক্তির পক্ষে শ্লোগান দিলে দল টিকিয়ে রাখা যাবে না। বিএনপিকে টেকানো যাবে না।’

এর আগে দলীয় এবং জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং পায়রা উড়িয়ে বরিশাল (দক্ষিণ) জেলা বিএনপির সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কর্মসূচির উদ্বোধন করেন মির্জা ফখরুল। এসময় তিনি দলের নেতা-কর্মীদের হাতে সদস্য ফরম তুলে দেন।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি বেগম সেলিমা রহমান, যুগ্ম মহাসচিব বরিশাল মহানগর বিএনপির সভাপতি এ্যাড মজিবর রহমান সরোয়ার এবং কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক বিলকিস জাহান শিরিন।

Print Friendly