“নিরুপমা”

0
140

লেখকসময় সংবাদ বিডিঢাকা:

তোমাকে বলা হয়নি,তোমার পছন্দের

বুনোবেলিতে মাটির দেয়াল ছেয়ে গেছে।

শাপলা ছাওয়া পুকুরের ঘোলাটে

জলের কিনার ঘেঁষে দাঁড়ানো প্রকান্ড

সে দেবদারু ঠাঁই দাঁড়িয়ে আছে এখোনো।

পুরোনো সেই গ্রাম।

আমাদের প্রথম সে কৈশোর..

তোমার নিয়ন্ত্রণহীন হাসি,লুকোনো

চোখে কিছু অভিমান!

তারপর একদিন কৈশোরের চৌকাঠ

পেরিয়ে তোমার হঠাৎ হারিয়ে যাওয়া!

তুমি বলেছিলে,পুরুষের প্রেম

তীব্রতর হতে পারে ।

তবে একনিষ্ঠতা শুধু নারীর ।

আজও তোমাকে বলা হয়নি

নিরুপমা,অই সেদিন থেকে আমি

একনিষ্ঠতা খুঁজে বেড়াই।

প্রকান্ড সে দেবদারু গাছের গায়ে

প্রথম কৈশোরে লেখা আমাদের

নাম,ওপাশের তালগাছে চৌত্রিশ বছর

ধরে বাবুই পাখিদের বুনন কৌশল

আর তোমার প্রিয় বুনোবেলির গন্ধে

মাতাল হয়ে অতঃপর ঘুমিয়ে পড়ি ।

তীব্রতর প্রেমের রুপায়ণে দেখতে পাই,

ছিপছিপে সে কিশোরী।

তার চৌত্রিশ বছর আগেকার চুলের

ঘ্রাণ মিশে থাকে

পাঁজরের ঠিক বাম পাশ টায়।

বার্ধক্য চোখে হো হো করে হাসে

ঘোলাটে ফ্রেমের চশমা..

তোমাকে বলা হয়নি নিরুপমা,

আমি এতযুগ সংসারে মেতেছিলাম দেবদারু

গাছে লেখা সে নাম জপে,

বুকের মাঝে ভিজে এক আকাশ এঁকে।

বিশ্বাস করো নিরুপমা,

আমিও একনিষ্ঠ ছিলাম ছিপছিপে

এক কিশোরীকে ভালোবেসে…

লেখক-সামিয়া শ্রাবণ

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here