ফুলবাড়ীতে উৎসব মুখর পরিবেশে দোল পুর্নিমা ও হোলি উৎসব পালিত

0
117

নুরনবী মিয়া, নিজস্ব প্রতিবেদক, সময় সংবাদ বিডি: কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে ব্যপক উৎসাহ উদ্দিপনা অার উৎসবমুখর পরিবেশে  পালিত হয়েছে দোল পুর্নিমার হোলি উৎসব। এ উপলক্ষে উপজেলার বিভিন্ন মন্দিরে চলে পুজা, হোমযজ্ঞ, প্রসাদ বিতারণসহ নানা ধর্মীয় অানুষ্ঠানিকতা।

বৃহস্পতিবার (২১মার্চ) ফুলবাড়ীতে সনাতন ধর্মালম্বী শিশু-বৃদ্ধ, ছেলে-মেয়ে, অাত্নীয়-স্বজন পাড়া প্রতিবেশি একে অপরকে অাবির ও রং ছিটিয়ে দোল পুর্নিমার হোলি উৎসব পালন করে।

একে অপরকে গায়ে অাবির মাখিয়ে অানন্দ করছিলেন তারা। এই হলিতে অংশ নেওয়া তরুন শ্রী কান্ত রায় বলেন, প্রতি বছরের ন্যায় অামরা এবারো দোল পুজা শেষে অাবির মেখে অানন্দ উল্লাস করেছি।উল্লাসে ভেদাভেদ ভুলে সকলে অংশ নিয়েছি। উওর বড়ভিটা এবং উওর কুটি-চন্দ্র-খানা গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা মাইদুল ইসলাম ও নিমাই চন্দ্র রায় বলেন, ধর্ম যার যার উৎসব সবার।
ফুলবাড়ী উপজেলা পুজা উদযাপন কমিটির সভাপতি কার্তিক চন্দ্র জানান, উপজেলা শহরের মন্দিরসহ সকল মন্দিরে ধর্মীয় রীতিনিতি অনুযায়ী দোল উৎসব পালিত হয়েছে।
ডেসটিনি পত্রিকার সাংবাদিক রতি কান্ত রায় বলেন, উৎসবটি দোলযাত্রা ও দোল পুর্ণিমা নামে পরিচিত। চৈএ মাসের শেষ পুর্ণিমাতে এই উৎসব পালিত হয় বলে এমন নাম। কথিত অাছে যে, দৈত্যরাজ হিরণ্যকিশপুর পুএ ভক্ত প্রহ্লাদ অসুর বংশে জম্ম নিয়েও পরম ধার্মীক ছিলেন। তাকে যখন বিভিন্নভাবে চেষ্টা করেও হত্যা করা যাচ্ছিল না তখন হিরণ্যকিশপুর বোন হোলিকা প্রহ্লাদকে কোলে নিয়ে অাগুনে প্রবেশের সিদ্ধান্ত নেন। কারণ হোলিকা এমন বর পেয়েছিল যে অাগুনেও তার কোন ক্ষতি হবে না।কিন্তু অন্যায় কাজে শক্তি প্রযোগ করায় হোলিকা প্রহ্লাদকে নিয়ে অাগুনে প্রবেশ করলেও বিষ্ণুর কৃপায় প্রহ্লাদ অক্ষত থেকে যায এবং ক্ষমতার অপব্যবহারে হোলির বর নষ্ট হয়ে যায এবং এখান থেকে হোলি পুঁজার উৎপক্তি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here