বৃহস্পতিবার , ১৭ অগাষ্ট ২০১৭
ব্রেকিং নিউজ

বগুড়ায় ছাত্রী ধর্ষণ: : আসামিদের বিরুদ্ধে রিমান্ড আবেদন

সময় সংবাদ বিডি,বগুড়া:-বগুড়ায় ছাত্রী ধর্ষণের পর সালিশের নামে মা-মেয়েকে মাথা ন্যাড়ার ঘটনায় শ্রমিক লীগ নেতা তুফান সরকারসহ গ্রেফতার ৪ জনকে আদালতে নেয়া হয়েছে।

রোববার (৩০ জুলাই) দুপুরে তাদের আদালতে নিয়ে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছে পুলিশ।

এদিকে শ্রমিক লীগ নেতা তুফান বাহিনীর সদস্য গ্রেফতার আতিক শনিবার রাতে ১৬৪ ধারা জবানবন্দীতে মা-মেয়েকে নির্যাতন ও তাদের মাথা ন্যাড়া করার ঘটনার স্বীকারোক্তি দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী।

গ্রেফতার হওয়া আসামিরা হলেন- বগুড়া শহর শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক তুফান সরকার (২৮), কসাইপাড়ার দুলু আকন্দের ছেলে আলী আজম দিপু (২৫), খান্দার সোনারপাড়ার মোখলেসার রহমানের ছেলে আতিক (২৫) ও কালিতলার জহুরুল হকের ছেলে রুপম (২৪)। শুক্রবার (২৮ জুলাই) তাদের গ্রেফতার করা হয়। এর মধ্যে আতিক ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

অভিযোগ উঠেছে, গত ১৭ জুলাই ওই ছাত্রীকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে তুফান। পরে স্থানীয় এক ওয়ার্ড কাউন্সিলরের সহযোগিতায় উল্টো মেয়েটিকেই এ ঘটনার জন্য দায়ী করে এবং বিচারের নামে মাসহ মেয়েটিকে ন্যাড়া করে দেওয়া হয়। এরপর তাদের এলাকা ছাড়া করার জন্য এসিড মারার হুমকি দেওয়া হয়।

পরে রাত ১২টার পর সদর থানা পুলিশ ঘটনা জানতে পেরে ভিকটিমদের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা ও রাতভর অভিযান চালিয়ে তিন সহযোগীসহ তুফানকে আটক করে। ছাত্রীর মা শনিবার দুপুরে সদর থানায় তুফান, কাউন্সিলর রুমকিসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে অপহরণ, ধর্ষণ ও অন্যান্য ধারায় মামলা করেন।

বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তুফান ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ ও অন্যরা সহযোগিতার কথা স্বীকার করেছে। তুফানের বিরুদ্ধে একটি মাদক আইনের মামলা বিচারাধীন রয়েছে। শিগগিরই কাউন্সিলর রুমকি ও অন্য আসামিরা গ্রেফতার হবে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।

Print Friendly