বনশ্রীতে গৃহকর্মী ‘হত্যার’ ঘটনায় গৃহকর্ত্রী গ্রেপ্তার

0
18

স্টাফ রিপোর্টার, সময় সংবাদ বিডি-ঢাকা:রাজধানীর বনশ্রী এলাকায় গৃহকর্মী লাইলি বেগম (২৫) ‘হত্যার’ ঘটনায় ওই বাসার গৃহকর্ত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ নিয়ে গ্রেপ্তারের সংখ্যা দাঁড়ালো তিনজন।

শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে নিজ বাসা থেকে গৃহকর্ত্রী শাহনাজ বেগমকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে লাইলি বেগমের ভাসুর শহীদুল ইসলাম বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা করেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন খিলগাঁও থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মোস্তাফিজুর রহমান।

নিহত লাইলি বেগমের বাড়ি কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ি থানার কাশিপুর ইউনিয়নে। তিনি খিলগাঁওয়ের হিন্দুপাড়া এলাকায় বসবাস করতেন।

লাইলির স্বামী নজরুল ইসলাম কুড়িগ্রাম সীমান্তে ভারতীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে আটক হন। বর্তমানে তিনি ভারতের রাজধানী দিল্লির একটি কারাগারে বন্দী আছেন বলে জানা গেছে।

জানান, শুক্রবার (৪ আগস্ট) সকালে বনশ্রীর ‘জি’ ব্লকের একটি বাসা থেকে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় গৃহকর্মী লাইলির লাশ উদ্ধার করা হয়। সেখানে প্রায় এ বছর ধরে গৃহকর্তা মঈনউদ্দিনের বাসায় কাজ করছেন লাইলি। সেখানে তার চার মাসের বেতন বকেয়া ছিল। এ নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে মঈনউদ্দিনের সঙ্গে ঝগড়া হচ্ছিল তার। শুক্রবার সকাল ৭টার দিকে লাইলি পাওনা টাকা নিতে ওই বাসায় যান। এরপর বিবস্ত্র অবস্থায় তার ঝুলন্ত লাশ পাওয়া যায়। ঘটনার পর বাসার গৃহকর্তা মঈনউদ্দিন ও বাড়ির দারোয়ানকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

লাইলির মৃত্যুর পর স্থানীয় বাসিন্দারা বিক্ষুব্ধ হয়ে মঈনউদ্দিনের বাসায় ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে এবং একইসঙ্গে স্লোগান দিয়ে মঈনউদ্দিনের বিচার দাবি করে। তার মৃত্যুকে কেন্দ্র করে রাজধানীর বনশ্রী এলাকায় সংঘর্ষ হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here