বিলুপ্ত ছিটমহল বিনিময়ের বর্ষপূর্তি উদ্যাপন

0
330

FULBARI PIC SIT (3)
নুরনবী মিয়া, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি সময় সংবাদ বিডি-
ঢাকা: দীর্ঘ ৬৮ বছরের বন্দি জীবনের অবসান ঘটে বাংলাদেশ ও ভারতের নাগরিকত্ব পাওয়া ১৬২ টি বিলুপ্ত ছিটমহলবাসী মুক্ত জীবনের প্রথম বর্ষপূর্তি স্বাধীনতা দিবস পালন করেছে। এ উপলক্ষে ১ আগষ্ট রাত ১২-০১ মিনিট থেকে সারা দিন ব্যাপী নানা কর্মসূচী উদ্যাপনের ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহন করে ১১১ টি ছিটমহলের বাসিন্দা। বাংলাদেশ-ভারত ছিটমহাল বিনিময় সমন্বয় কমিটি আন্দোলনের সাবেক নেতারা এসব কর্মসূচীর তদারকি করছেন। সেই সাথে যোগ দিচ্ছেন বিলুপ্ত ছিটমহলের অন্তর্গত জেলা, উপজেলা প্রশাসনের লোকজন, স্থানীয় রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

বাংলাদেশের ও ভারতের ১৬২টি বিলুপ্ত ছিটমহলে প্রথম মুক্তি দিবসের কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে দীর্ঘ ৬৮ বছরের স্মরণে রাত ১২টা ০১মিনিটে ৬৮টি মোমবাতি প্রজ্জ্বলন, বড় মশাল জ্বালিয়ে অন্ধকারচ্ছন্ন জীবন থেকে আলোকিত জীবনে ফিরে আসার প্রত্যয় ঘোষনা, আতশ বাজি এবং বিজয় মিছিল ।

এরপর সকাল ৮টায় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবিতে মাল্যদান, ৮টা ৩০মিনিটে বিলুপ্ত ছিটমহলের সকল মসজিদ, মন্দিরে দোয়া ও বিশেষ প্রার্থনা এবং সকাল ৯ টায় বর্ণাঢ্য র‌্যালি। এরপর বিলুপ্ত ছিটমহলের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মাঠে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন ও বিকেল ৪টায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশ-ভারত বিলুপ্ত ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির বাংলাদেশ ইউনিটের সাবেক সাধারন সম্পাদক গোলাম মোস্তফা জানান, এই কর্মসূচী বাংলাদেশের বিলুপ্ত ১১১টি ছিটমহলে একযোগে অনুষ্ঠিত হবে। অন্যদিকে ভারতের ৫১টি ছিটমহলেও পালিত হচ্ছে এই বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান। এসব ছিটমহলবাসী না পাওয়ার বেদনায় এ দিবসটিকে কালো দিবস হিসেবে পালন করবে বলে মুঠোফোনে জানান, বাংলাদেশ-ভারত ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির ভারত অংশের সহ-সাধারণ সম্পাদক দীপ্তিমান সেনগুপ্ত।

এ দিবসকে কেন্দ্র করে ছিটমহল বিনিময় আন্দোলনের প্রধান কার্যালয় দাসিয়ারছড়ার কালিরহাটে ব্যাপক কর্মসূচী হাতে নেওয়া হয়। এর মধ্যে ১২টা০১ মিনিটে মোমবাতি প্রজ্বলনের পর শুরু হয় আনন্দের আতশ বাজি। এরপর শুরু হয় মিছিল ও সমাবেশ। কালিরহাট কমিউনিটি সেন্টার মাঠে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুড়িগ্রাম জেলা পরিষদ প্রশাসক ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জাফর আলী ও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা কৃষকলীগের সভাপতি এম এ চাষী করিম।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ-ভারত বিলুপ্ত ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির বাংলাদেশ ইউনিটের সাবেক সভাপতি মইনুল হক চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ-ভারত বিলুপ্ত ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির বাংলাদেশ ইউনিটের সাবেক সাধারন সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, বাংলাদেশ-ভারত বিলুপ্ত ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটি দাসিয়ারছড়া ইউনিটের সাবেক সভাপতি আলতাব হোসেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আতাউর রহমান শেখ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক গোলাম রব্বানী সরকার, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আবুবক্কর সিদ্দিক মিলন, উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হারুন অর রশিদ, দাসিয়ারছড়া ছাত্রলীগের সভাপতি জাকির হোসেন প্রমূখ।

বাংলাদেশ-ভারত বিলুপ্ত ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটি দাসিয়ারছড়া ইউনিটের সাবেক সভাপতি আলতাব হোসেন বলেন, আমাদের ৬৮ বছরের বন্দি জীবন থেকে মুক্তি লাভ করার এক বছর পূর্তি এই আনন্দ অনুষ্ঠানে সামিল হতে সর্বস্তরের মানুষকে আহবান করেছি। দীর্ঘ ৬৮ বছর জীবনের অবসান ঘটিয়ে বাংলাদেশ ও ভারতের নাগরিকত্ব পাওয়া ১৬২টি বিলুপ্ত ছিটমহলবাসী এবার মুক্ত জীবনের প্রথম বর্ষপূর্তি মুক্তি দিবস পালন করছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here