বিষাদ বৃক্ষের বুকে অমৃতবৃক্ষ 

0
62
সময় সংবাদ বিডি 
        কবিতাঃ-বিষাদবৃক্ষ!
এটি প্রকৃতির কোনো বৃক্ষ না,
                   এটি হলো-
 কষ্টের ফ্রেমে বন্দি একটি জীবনের
              প্রথম পর্বের নাম,
   যখন জীবনের গল্পটা কল্পনা ছিল
      তখন  হাজার কষ্টের মাঝেও
        মনের মাঝে সুখ থাকতো
   তাই ইচ্ছে মতো হাসতে পারতাম।
    যখন কল্পনার গল্পটা বাস্তব হলো
         তখন হাজার সুখের মাঝে
           একবিন্দু কষ্ট আসলেও
             আমি হাসতে পারিনা
                তোমার শূন্যতায়
  হৃদয়ের ভিতরে হু হু করে কেঁদে ওঠে।
          জানিনা,আর কত বিষাদ হলে
জীবনটাকে সুখের ফ্রেমেবন্দী করতে পারবো,
    জীবন তো শিরনি খাবার কলাপাতা না
         যে শিরনি খেয়ে ফেলে যাব!
    জীবন হলো বাস্তব একটি উপন্যাস
       আর প্রেম হলো তার অলংকার।
আমার জীবন উপন্যাসের প্রথম পর্বটা হলো
                     বিষাদবৃক্ষ!
       এ পর্বে আমি শুধুই অবহেলিত
 ছায়ানটের নৃত্যের মতো তামাশার পাত্র।
প্রেমের উপন্যাসের কয়েক পৃষ্ঠা পাঠ করলে
 পাঠকের মনে একটা আন্দাজ চলে আসে।
            শেষ পরিণতি কি হবে!
জীবন উপন্যাসের শুরু হতে শেষ পাঠ না করলে
            পাঠক কি মন্তব্য করবে?
জীবন উপন্যাসের শেষ পর্বটা কেমন হবে।
    আমার জীবনের প্রথম পর্বটা হলো
                     বিষাদবৃক্ষ!
দ্বিতীয় পর্বটা তো অমৃতবৃক্ষ হতে ও পারে
           তৃতীয় পর্বে গিয়ে হয়তো
                অমৃতবৃক্ষের বুকে
        আবার বিষাদবৃক্ষের জন্ম হবে!
তাই জীবনটাকে তিন ভাগে বিভক্ত করে
          প্রথম পর্বের নাম দিয়েছি
                    বিষাদবৃক্ষ!
     তুমি আসলে জীবন উপন্যাসের
                  অলংকার হয়ে
 তাই তো আমি তোমাকে নিয়েই সাজাতে চাই
            আমার জীবন উপন্যাসের
                দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্ব
    বিষাদবৃক্ষের বুকে অমৃতবৃক্ষ জন্ম দিয়ে।
লেখক-এম.এ. কাওছার মুরাদ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here