“বিস্ময় শিশু”৬ বছরের জুনিয়র মুস্তাফিজ

0
224

মেহিদী হাসান বাপ্পী

সময় সংবাদ বিডি ঢাকাঃ জানাবো এক বিস্ময় ক্রিকেটারের কথা। ৬বছরের নাফিউল খান। ছোট হৃদয় জুরে মুস্তাফিজের প্রভাব এতটাই বেশি তার বলিং এর কাটার মাস্টার মুস্তাফিজের এর ছন্দ। টানা এক স্পট এ বলিং করা, দারুণ ফলো থ্রো। এসব বৈশিস্ট ঈ এই বিস্ময় শিশুর। মাশরাফি সাকিবদের উত্তরসুরি হওয়ার স্বপ্নে বিভোর এর ছোট্টো নাফিন। তার স্বপ্ন পুরোনে স্বারথি হোয়েছে গোটা পরিবার।

“নাফিউল খান” যে বয়সে হাতে খেলনা থাকার কথা সে বয়সেই ক্রিকেটের নানা দক্ষতা রপ্ত করেছেন ৬ বছরের এই শিশু। তার প্রতিভা ও প্রকাশ দেখে ইতিমধ্যে মিলেছে বিস্ময় শিশু খেতাব।

স্কুলের বারান্দায় সদ্য পা রাখা নাফিউল মনে প্রানে একজন পুর্ণ ক্রিকেটার। টিভি পর্দায় খেলা দেখার অভ্যাস দুবছর বয়স থেকে। সাড়ে তিন বছর বয়স থেকে বড় ভাই সামিউলের হাত ধরে ক্রিকেটার যাত্রা সুরু বাড়ির আঙিনায়। তবে ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে ৪বছর বয়সে ক্রিকেটের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু কোচ শাজাহান শাজুর হাত ধরে। এ লিটল মাস্টার এর প্রতিভায় মুগ্ধ তার কোচরা ও, পেইস বলিং এই সবচেয়ে বেশী সাচ্ছন্দ এই ক্ষুদে ক্রিকেটারের। বাহাতি পেসারের রানাপ,জাম্পিং, ল্যান্ডিং, ডেলিভারি আর ফোলোথ্রো সবকিছুই মুগ্ধ করবে আপনাকে। কাটার মাস্টার মুস্তাফিজের প্রতি ই বেশি আগ্রহ নাফিউলের আর মাশরাফি সাকিবরা তার বড় অনুপ্রেরণা।

শুধু অনুশীলনে নয় গত এক-দেড় বছরে নাফিউল খেলেছে প্রায় ৫০ ম্যাচ। বলিং এর পাশাপাশি মুগ্ধ করবে নাফিউল এর ব্যাটিং ও ফিল্ডিং। তবে খেলা দেখার নেশা থেকেই শিশু নাফিউল এর ক্রিকেটে আসা যেখানে সবচেয়ে বড় ভুমিকা ছিল তার পরিবারের।

এই বয়সে তার হারার ইচ্ছাটা নেই। নাফিউল এর মাঝে উজ্জল ভবিষ্যৎ দেখসেন ক্রিকেটার সংগঠক আব্দুল মজিদ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here