বিয়ের সাথে রিজিকের সম্পর্ক!!

0
60

সময় সংবাদ বিডি

ঢাকাঃ বিয়ে (ইংরেজিঃ Marriage) একটি উত্তম বন্ধুত্বের নাম।।আমাদের সমাজে বিয়ে একটা সামাজিক এবং পারিবারিক বন্ধনও বটে।। সব থেকে বড় ব্যাপার বিয়ে হচ্ছে আল্লাহ্‌ মনোনীত বিধান যা একজন মমিন পুরুষ এবং নারীকে একে অপরের জন্য হালাল করা হয়েছে “আলহামদুলিলাহ”, যাই হোক মূল কথায় আসি। আমাদের সমাজে আজ বিয়ে অনেক দুঃসাধ্য হয়ে গেছে আজকাল ছেলেরা বিয়ের জন্য নিজের পরিবারের কাছে প্রস্তাব রাখলে পিতা-মাতা ক্ষেপে যায়। বলেবিয়ের বয়স হয় নাই মেয়ের বাবার দাবী বিয়ে করলে কি খাওয়াবে কি ব্যাবসা করে বা ভালো চাকরি করে কিনা (?) অথচ ছেলে দুই চারটা মেয়ে মানুষ নিয়ে বাবার টাকা খরচ করলে তাদের এই চিন্তা আসে না। অনেক পিতা-মাতার ইসলাম সম্পর্কে সঠিক জ্ঞান না থাকার কারনে এরূপ কথা বলে শির্কের পর্যায় চলে যায়। বিয়ে এমন একটা পবিত্র বন্ধন যা কিনা একজকে দ্বারা আরেক জনের রিজিক বৃদ্ধি করে তা তাদের বোধগম্য নয়।

আল্লাহ্‌ বলেনঃ ‘আর তোমরা তোমাদের মধ্যকার অবিবাহিত নারী-পুরুষ ও সৎকর্মশীল দাস দাসীদের বিবাহ দাও। তারা অভাবী হলে আল্লাহ নিজ অনুগ্রহে তাদেরকে অভাবমুক্ত করে দেবেন। আল্লাহ প্রাচুর্যময় ও মহাজ্ঞানী।’[সূরা আন-নূরঃ ৩২]
.
আল্লাহ্‌র উপরে ভরসা করে যারা অবিবাহীত আছেন তারা বিয়ে করে নিতে পারেন।ইন’শা আল্লাহ্‌ আল্লাহ্‌র কাছে সবকিছুর ভান্ডার রয়েছে।আল্লাহ অবশ্যই উত্তম ফয়সালাকারী।।আমাদের উচিৎ আল্লাহ্‌র উপরে ভরসা করে নেক এবং হালাল কাজের চেষ্টা করা।।
.
রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেছেনঃ ‘যদি তোমরা আল্লাহর প্রতি যথাযথভাবে ভরসা কর, তাহ’লে তিনি তোমাদেরকে অনুরূপ রিযিক দান করবেন, যেরূপ পাখিদের দিয়ে থাকেন। তারা প্রত্যুষে খালি পেটে বের হয়ে যায় এবং দিনের শেষে ভরা পেটে ফিরে আসে’ [তিরমিযী, ইবনু মাজাহ, মিশকাত হা/৫০৬৯]
.
আল্লাহ্‌ আমাদের বিয়ে করার সৎ সাহস এবং তৌফিক দান করুন। আমীন

লেখক- আবু লাইবাহ

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here