শনিবার , ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭
ব্রেকিং নিউজ

মার্কিন বিমান ঘাঁটিতে হামলার কথা ভাবছে ‍উত্তর কোরিয়া

 আন্তর্জাতিক ডেস্ক,সময় সংবাদ বিডি :যুক্তরাষ্ট্রের প্রশান্ত মহাসাগরীয় সামরিক ঘাঁটি গুয়ামে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে উত্তর কোরিয়া!

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মঙ্গলবার উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে ভয়াবহ যুদ্ধের হুমকি দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর পিয়ংইয়ং গুয়ামে হামলার হুমকি দিয়েছে।

দুই দেশের হুমকি-পাল্টা হুমকির মাত্রা যেন আরো চরমে পৌঁছাল। উত্তর কোরিয়া এর আগে যুক্তরাষ্ট্রে হামলার হুমকি দিলেও, তা ছিল বলতে গেলে বাকসর্বস্ব। কিন্তু এবার একধাপ এগিয়ে কোথায় হামলা চালাবে তা জানান দিল উত্তর কোরিয়া। এ নিয়ে আন্তর্জাতিক বিশ্বে নতুন উত্তেজনা তৈরি হয়েছে।

উত্তর কোরিয়া রাষ্ট্রীয় বার্তাসংস্থা কেসিএনএ জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের গুয়াম ঘাঁটিতে মধ্যম থেকে দূরপাল্লার রকেট হামলার পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছে। যুক্তরাষ্ট্রের বোমারু বিমানের ঘাঁটি গুয়াম।

ধারবাহিকভাবে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার পর উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে জাতিসংঘ। এ নিষেধাজ্ঞা মানবে না বলে জানিয়েছে পিয়ংইয়ং।

এরই মধ্যে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদনে বলা হয়, উত্তর কোরিয়া এমন ধরনের ছোট নিউক্লিয়ার ওয়ারহেড তৈরি করেছে, যা তাদের ক্ষেপণাস্ত্রের সঙ্গে বসিয়ে দেওয়া যাবে। এরপর ট্রাম্প উত্তর কোরিয়ার সামরিক হস্তক্ষেপের হুমকি দেন।

মার্কিন গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ওয়াশিংনটন পোস্টের খবরে বলা হয়, উত্তর কোরিয়া এমন সব ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করছে, যা ধারণার চেয়েও বেশি গতিতে যুক্তরাষ্ট্রে আঘাত করতে পারবে।

কেসিএনএর খবরে বলা হয়, গুয়ামের চারপাশে মধ্যম থেকে দূরপাল্লার স্ট্র্যাটেজিক ব্যালিস্টিক রকেট হোয়াসং-১২ দিয়ে হামলার চালানোর পরিকল্পনা সতর্কতার সঙ্গে পরীক্ষা করে দেখছে উত্তর কোরিয়ার সামরিক বাহিনী।

দক্ষিণ কোরিয়ার বার্তাসংস্থা ইয়োনহ্যাপ বলেছে, পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষ হওয়ার পর পরিকল্পনার বিষয়ে সুপ্রিম কমান্ডকে অবহিত করা হবে এবং কিম জং-উনের নির্দেশের অপেক্ষা করা হবে।

এর আগে ট্রাম্প বলেন, উত্তর কোরিয়া এমন ভয়াবহ যুদ্ধের মুখে পড়বে, যা কেউ কখনো দেখেনি। যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে তাদের আর কোনো হুমকি দিতে দেওয়া হবে না।

তবে ট্রাম্পের বক্তব্যের বিষয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রবীণ সিনেটর জন ম্যাককেইন। তিনি বলেন, ‘আমার দেখা বড় নেতারা প্রস্তুতি না দিয়ে কখনোই পদক্ষেপ নেওয়ার হুমকি দেননি এবং আমি নিশ্চিত নই, ট্রাম্প প্রস্তুত কিনা।’

তথ্যসূত্র : বিবিসি অনলাইন

Print Friendly