মুহরম মাসের পরিচিতি

0
218

সময় সংবাদ বিডি –

ঢাকাঃ আল্লাহ্‌ বলেনঃনিশ্চয় মাসসমূহের গণনা আল্লাহর কাছে বার মাস আল্লাহর কিতাবে, সেদিন থেকে যেদিন তিনি আসমান ও যমীন সৃষ্টি করেছেন। এর মধ্য থেকে চারটি সম্মানিত, এটাই প্রতিষ্ঠিত দ্বীন। সুতরাং তোমরা এ মাসসমূহে নিজদের উপর কোন জুলুম করো না। [সূরা ত্বাওবাহঃ ৩৬]
.
মুহররম, একটি মহান বরকতময় মাস। হিজরি সনের প্রথম মাস । এটি ‘আশহুরে হুরুম’ তথা হারামকৃত মাস চতুষ্টয়ের অন্যতম।
.
রাসুল (সঃ) বলেছেনঃ বছর হলো বারোটি মাসের সমষ্টি, তার মধ্যে চারটি অতি সম্মানিত। তিনটি পর পর লাগোয়া জিলকদ, জিলহজ ও মুহররম আর (চতুর্থটি হলো) জুমাদাস সানি ও শাবানের মধ্যবর্তী রজব। [বুখারীঃ ২৯৫৮]
.
আমরা একটু চিন্তা করলে বুঝতে পারি আল্লাহ্‌ বলেছেন #তোমরা_এই_মাসসমূহে_নিজের_প্রতি_জুলুম_করো_না।। সুক্ষ ভাবে চিন্তা করলেই বুঝি, আল্লাহ্‌ কিন্তু জুলুম পছন্দ করেন না কোন মাসে বা কোন দিনে বা কোন ঘন্টায়। এই মাস সমূহে জুলুম করতে নিষেধ করেছে মানে এখানে বিশাল কিছু বুঝতে হবে,কারণ এ সময়ে সংঘটিত অন্যায় ও অপরাধের পাপ অন্যান্য সময়ের চেয়ে বেশি ও মারাত্মক।। এই মাসে শিয়া সম্প্রদায় যে সকল জুলুম নিজেদের মধ্যে করে থাকে এগুলা ইসলামের বহিঃভূত নয়।। এটা স্পষ্ট হারাম, সেটা আমরা কুর’আনের আয়াত দেখলেই বুঝতে পাই।। শরিয়তের সাথে কারবালার এই ঘটনার কোন সম্পর্ক নাই।।
.
আল্লাহ্‌ আমাদের এই মাসসমূহের তাতপর্য বুঝার এবং মানার তৌফীক দান করুন। যেহেতু মহরম মাস শুরু হয়ে গেছে তাই আমরা একটু সাবধান হয়ে যাই, যেনো আমাদের দ্বারা কোন জুলুম না হয়ে যায় নিজের প্রতি বা অন্যের প্রতি।।

✍️-আবু লাইবাহ

 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here