শাহজালালে ২৯ লাখ টাকার স্বর্ণ জব্দ, যাত্রী আটক

0
97

Image result for শাহজালালে ২৯ লাখ টাকার স্বর্ণ জব্দ, যাত্রী আটকস্টাফ রিপোর্টার,সময় সংবাদ.কম–ঢাকাঃঢাকার হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে আবারো এক ‘স্বর্ণমানব’ আটক করেছে শুল্ক গোয়েন্দা। তার কাছ থেকে প্রায় ২৯ লাখ টাকার স্বর্ণ জব্দ করা হয়েছে।

রোববার সকালে শারজাহ থেকে এয়ার এরাবিয়ার একটি ফ্লাইটে আসা ওই ব্যক্তিকে আটক করা হয়।

বেলা পৌণে ১২টায় শুল্ক গোয়েন্দার ফেসবুক পেজে এ সংবাদ দেয়া হয়।

আটক ‘স্বর্ণ মানবের’ নাম সোহেল রানা (৩০ বছর) তানর বাড়ি রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায়। পিতার নাম জান শরীফ। পাসপোর্ট নম্বর: বিএফ ০৯৮০৫৭৪।

তিনি রোববার সকাল সাড়ে ৭টায় শারজাহ থেকে এয়ার এরাবিয়ার জি৯৫১৩ ফ্লাইটে শাহাজালালে অবতরণ করেন।
শুল্ক গোয়েন্দা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই যাত্রীকে নজরদারিতে রাখে।

কাস্টমস এবং ইমিগ্রেশনের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করে গ্রিন চ্যানেল পেরিয়ে চলে যাওয়ার সময় তাকে চ্যালেঞ্জ করে শুল্ক গোয়েন্দার দল।

‘স্বর্ণমানবের’ চোখে কালো দাগ ও হাঁটাচলায় অস্বাভাবিকতা লক্ষ করলে শুল্ক গোয়েন্দাদের সন্দেহ আরো ঘনীভূত হয়। তবে তিনি কোনোভাবে তার পেটে স্বর্ণ থাকার কথা স্বীকার করছিলেন না। পরে তাকে শুল্ক গোয়েন্দার অফিস কক্ষে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

কিন্তু তিনি বারবার তার কাছে স্বর্ণ থাকার কথা অস্বীকার করেন। আর্চওয়ে মেশিনে হাঁটিয়েও গোয়েন্দারা স্বর্ণের ব্যাপারে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হতে পারেন নি। পরে তাকে উত্তরার উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে এক্সরে করানো হয়।
রিপোর্টে যাত্রীর তলপেটে স্বর্ণের অস্তিত্ব সম্পর্কে আরো নিশ্চিত হয় শুল্ক গোয়েন্দার দল। কর্তব্যরত ডাক্তারও এটি উল্লেখ করেন।

এরপর যাত্রীকে বিমানবন্দর নিয়ে শরীর থেকে স্বর্ণ বের করার চেষ্টা চলতে থাকে। বরাবরের মতো স্বর্ণমানবকে কলা ও প্যাকেট জুস খেতে দেয়া হয়। বিমানবন্দরে রক্ষিত লুঙ্গি পরে শুল্ক গোয়েন্দাদের উপস্থিতিতে টয়লেটের অভ্যন্তরে বিশেষ কায়দায় পায়ুপথ দিয়ে দুটি স্বর্ণবার বের করে আনেন এবং পরে তার হাতব্যাগে থাকা ভ্যাজলিনের কৌটার ভেতর থেকে আরও দুটি স্বর্ণবার ও প‍্যাকেট থেকে ১০৯ গ্রাম অলংকার পাওয়া যায়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায়, ওই যাত্রী দুটি করে গোল্ডবার টেপ মুড়ে রেক্টামে প্রবেশ করান। এসব স্বর্ণ শারজাহ এয়ারপোর্টের ভেতরে নিজেই পুশ করেন তিনি।

পাসপোর্ট পরীক্ষায় দেখা যায়, ২০১৭ সালে তিনি নয় বার শারজাহ ভ্রমণ করেছেন। তবে প্রতিবার স্বর্ণ বহন করেছিলেন কিনা তা জানার চেষ্টা চলছে।

জব্দ চারটি স্বর্ণবারের প্রতিটির ওজন ১১৬ গ্রাম। এছাড়া তিনি স্বর্ণালংকার আনেন যাদের মোট ওজন ১০৯ গ্রাম। মোট স্বর্ণের পরিমাণ ৫৭৪ গ্রাম। জব্দ স্বর্ণের মূল্য প্রায় ২৮ লাখ ৭০ হাজার টাকা।

আটক সোহেল রানাকে চোরাচালানের দায়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এবং অন্যান্য আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

স্বর্ণগুলো কাস্টমস গুদামে জমা করা হবে। পরে তা বিশেষ প্রহরায় বাংলাদেশ ব্যাংকে জমা করা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here