শিক্ষার্থী আছমাকে কৃত্রিম পা দিলেন প্রেসক্লাব সভাপতি

0
96

সময় সংবাদ বিডি-

ঢাকাঃ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে জন্মগত এক দিনমজুর জাফর আলীর মেয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী আছমা আক্তারকে কৃত্রিম পা দান করলেন রূপগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি লায়ন মীর আব্দুল আলীম।

শিক্ষার্থী আছমার মুখে হাসি ও স্বপ্ন পূরন হয়েছে দরিদ্র অভিভাবক আছমার মা আছিয়া বেগমের।স্বাভাবিকদের সাথে তালমিলিয়ে পায়ে হেটে বিদ্যালয়ে যাওয়া আসা করতে পারছে আছমা।আছমার স্বপ্ন সে বড় হয়ে ডাক্তার হবে।

আব্দুল হক ভুঁইয়া ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের পরিচালক মনিরুল হক ভুইয়া জানান,তার বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী আছমা প্রতিদিন খুড়িয়ে খুড়িয়ে দেড়কিলোমিটার পথ হেটে বিদ্যালয়ে যাতায়াত দৃশ্য চোখে পড়ে একই বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী মাহিরা তাসফি প্রভার পিতা মাহবুব আলম প্রিয়’র।তিনি প্রথমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে হাটার দৃশ্য প্রচার করলে নজর কাড়ে রূপগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি কলামিষ্ট লায়ন মীর আব্দুল আলীমের।
তাৎক্ষণিক আছমাকে কৃত্তিম পায়ের ব্যবস্থা করবেন বলে ঘোষণা দেন মীর আব্দুল আলীম।

স্থানীয় বাসিন্দা মাহবুব আলম প্রিয় বলেন,আছমা দরিদ্র ঘরের সন্তান।তার দিনমজুর বাবা কোন মতেই পারতেন না প্রায় লাখ টাকা দিয়ে একটি কৃত্রিম পা স্থাপন করতে।তিনি বলেন, আমার ফেসবুক আইডিতে পোস্ট দেখে রূপগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি কলামিষ্ট ও গবেষক লায়ন মীর আব্দুল আলীম তার পা স্থাপনের অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

গত মঙ্গলবার সকালে আছমাকে কৃত্তিম পা স্থাপনের জন্য রাজধানীর ইন্দোলাইট নামক একটি প্রতিষ্ঠানে নিয়ে যান।সেখান থেকে পা কিনে তাৎক্ষণিক পা স্থাপন করে নিজেই প্রশিক্ষণ দেন।শুধু তাই নয়,আনুষাঙ্গিক সামগ্রি ও নগদ অর্থ প্রদান করেন তিনি। আছমার মা আছিয়া বেগম বলেন,আমি চিরকৃতজ্ঞ।আমার অসহায় মেয়েটিকে হাটার ব্যবস্থা করে রূপগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি আমাদের পরিবারে নতুন হাসি ফুটানোর জন্য।

কলামিষ্ট ও গবেষক লায়ন মীর আব্দুল আলীম বলেন,মানুষ মানুষের জন্য।আমরা সবাই মিলে দরিদ্রদেরকে সাধ্যমত সহায়তা করলে অনেক দুঃখি মানুষের মুখে হাসি ফুটানো সম্ভব।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান, সময় সংবাদ বিডিকে বলেন,সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে এলে কোন দরিদ্রের সন্তানরাই অসহায়ত্ব বোধ করবে না। তাই সকলের উচিত এ ধরনের মানুষের পাশে দাড়ানো।

(সুমন মজুমদার রূপগঞ্জ)

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here