শ্রমিক কর্মচারী লীগের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয় ছাতা মার্কা

0
149

মোঃ দেলোয়ার হোসেন,সময় সংবাদ বিডি-ঢাকা:দীর্ঘদিনের বঞ্চিত নিপীড়িত ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের শ্রমিক কর্মচারী লীগের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে৷ উক্ত নির্বাচনে তিনটি প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন,যার মধ্যে রয়েছে বকুল,হারুন,রোকন পরিষদ,(ছাতা) মার্কা ৷

স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জামাল,সোহেল পরিষদে(বেলছা)মার্কা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন,অন্যদিকের শিদ,কাদের,বাবুল পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ৷ চেয়ার (মার্কা)সাধারণ কর্মচারীদের দীর্ঘদিনের প্রতীক্ষিত সরাসরি ভোটে নির্বাচনের মাধ্যমে নেতা নির্বাচিত করার আকাঙ্ক্ষা ছিল ৷

গত ১৬ই নভেম্বর সকাল আটটা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ করা হয়,উক্ত নির্বাচনে ১৬১৮জন ভোটাররা ভোট প্রদান করেন,স্বতস্ফূর্ত,মনোরম পরিবেশে স্বচ্ছন্দে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট প্রয়োগ করে থাকেন ৷বিকেল চারটার পর ভোট শেষ হলে নির্বাচন কমিশনার মফিজুর রহমান ভূঁইয়া নেতৃত্বে নির্বাচন পরিচালিত হয় এবং ভোট গণনা শুরু করে ৷অনেক প্রতিক্ষার পর রাত১২ টায় নির্বাচনের ফল প্রকাশ করা হয়।

নির্বাচনের ফলাফলে দেখা যায় বকুল,হারুন,রোকন পরিষদ (ছাতা) মার্কা বিপুল ভোটের ব্যবধানে সম্পুর্ন প্যানেলটি বিজয় ছিনিয়ে নেয়,নির্বাচিত প্রার্থীরা হলেন মোঃ বজলুল মোহাইমিন( বকুল) সভাপতি ছাতা মার্কা তিনি ভোট পেয়েছেন ৬৫৪,তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মোঃ জামাল হোসেন বেলচা (মার্কা )ভোট পেয়েছেন ২৮৮,কার্যকরী সভাপতি হারুন মিয়া ছাতা মার্কা ৭০৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন
মোঃ সাইদুল ইসলাম চৌধুরী সহ-সভাপতি ছাতা মার্কা ৭৪১ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন।

আব্দুস সালাম মৃধা সহ-সভাপতি ছাতা মার্কা ৭২২ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। আব্দুল খালেক মজুমদার সহ-সভাপতি ছাতা মার্কা ৭২৮ভোট পেয়ে বিজয়ী হন,মাহমুদুল হাসান রোকন সাধারণ সম্পাদক ছাতা মার্কা ৭৬৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন
মোঃমাসুদ কাজী সাংগঠনিক সম্পাদক ছাতা মার্কা ৫৫১ভোট পেয়ে বিজয়ী হন।

সম্পূর্ণ প্যানেল বিজয় শেষে ভোটারদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন নবনির্বাচিত সভাপতি বকুল,বলেন সাধারণ কর্মচারীরা আমাকে বিপুল ভোটে নির্বাচীতকরেছেন অামি ভোটারদের কাছে কৃতজ্ঞ আমাকে বিপুল ভোটে বিজয় করেছে৷ আমি তাদের কল্যাণে জীবন বাজি রেখে কাজ করে যাব,আজ থেকে আমাদের মধ্যে কোন ভেদাভেদ নেই যারা বিজয় হতে পারেননি তাদের সাথে নিয়ে সাধারণ কর্মচারীদের কল্যাণে কাজ করে যাব ৷

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here