সফল মানুষরা যে কারণে সফল

0
36

10421308_1510009709249151_6494330534517645793_n

শেখ জাহিদুজ্জামান, সময় সংবাদ বিডি

ঢাকা: অনেকের ধারণা সফল ব্যক্তিরা শুধু কাজের পেছনেই ছুটে থাকেন। তাঁদের নেই কোনো বিনোদন, তাঁরা পরিবারকে কোনো সময় দেন না, এমনকি নিজেকেও তাঁরা সময় দেন না। আসলে ব্যাপারটি কিন্তু এমন না। তাঁরা যে আজ সফল এর পেছনে বেশ কিছু কারণ রয়েছে। শুধু টাকার পিছনে ছুটলেই জীবনে সফল হওয়া যায় না। অনেক কর্মব্যস্ততার মাঝেও চাই নিজের জন্য আলাদা একটি রুটিন। যা আপনার মনকে প্রফুল্ল রাখবে, সম্পর্ক মধুর রাখবে এবং শরীরকে সুস্থ রাখবে।

রিডার্স ডায়জেস্টে এমন কিছু কাজ তুলে ধরা হয়েছে যা সফল ব্যক্তিরা হরহামেশাই মেনে চলেন। চলুন, এক নজরে জেনে নিই সফল হতে হলে কাজের বাইরেও কী কী মেনে চলবেন-

ব্যস্ত, সফল ব্যক্তিরা ভিন্নভাবে বিভিন্ন কাজ করে থাকেন

সফল ব্যক্তিরা নিজের কাজের তালিকা আগেই নির্ধারণ করে নেন এবং পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করেন। তাঁরা চেষ্টা করেন ভিন্ন ধরনের কাজ করতে। যাতে কিছুদিন পর কাজের প্রতি অনীহা না আসে। অফিস ছুটির পর ঘুমানোর আগ পর্যন্ত যে সময় পাওয়া যায় সেটুকু সময় তিনি কোনো একটা কাজের মধ্যে পার করার চেষ্টা করেন। সেটা পরিবার সংক্রান্ত হতে পারে আবার নিজের ব্যক্তিগত কাজও হতে পারে। এভাবেই তিনি কাজের মধ্যে ভিন্নতা আনার চেষ্টা করেন।

পরিবারকে সময় দেওয়া

যতই কর্মব্যস্ততা থাকুক না কেন, একজন সফল ব্যক্তি সব সময় তাঁর পরিবারকে সময় দেওয়ার চেষ্টা করেন। আপনি যদি সারা দিনের কর্মব্যস্ততার পর পরিবারের সঙ্গে কিছুটা ভালো সময় কাটান তাহলে আপনার সারা দিনের ক্লান্তি দূর হয়ে যাবে এবং পরের দিন আপনি নতুন করে কাজ করার উৎসাহ খুঁজে পাবেন। তাই যদি সফলভাবে কাজ করতে চান তাহলে পরিবারের সঙ্গে ভালো কিছু সময় কাটান।

সময়ের ধরাবাধা নিয়মের বাইরেও নিজের জীবন

প্রতিদিন নিয়ম করে সব করা সম্ভব না। আপনি যদি বলেন, আমি প্রতিদিন ব্যায়াম করতে পারি না কারণ আমার পরিবারকে সময় দিতে হয়। এই ধরনের অজুহাত সাধারণত সফল ব্যক্তিরা করেন না। তারা প্রতিদিন না পারলেও সপ্তাহে অন্তত একদিন ব্যায়াম করে থাকেন। আবার সপ্তাহে একদিন পরিবারকে নিয়ে বাইরে কোথাও খেতেও যেতে পারেন অথবা পুরনো কোনো বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে পারেন। জীবনে একটু আধটু ব্যতিক্রম কাজ আপনার দৈনন্দিন সময়সূচিতে খুব একটা পরিবর্তন আসবে না। একবার করেই দেখুন না, ভালো লাগবে।

সফল ব্যক্তিরা বিনোদনের জন্য পরিকল্পনা করে থাকেন

আপনি কি জানেন, নিজের পরিবার, আত্মীয়স্বজন এবং বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেওয়ার পরিকল্পনাও বাদ যায় না সফল ব্যক্তিদের তালিকা থেকে। একসঙ্গে খাওয়া, ঘুরতে যাওয়া, ছুটির দিনে পিকনিকে যাওয়া অথবা কোনো খেলায় অংশগ্রহণ করা, সবকিছুই তাঁদের পরিকল্পনায় থাকে এবং তাঁরা সময় অনুযায়ী সব কিছু করেও থাকেন।

সঙ্গীকে সঙ্গ দেওয়া

কাজের ভিতর খানিকটা সময় সঙ্গীকে সময় দেওয়ার ব্যাপারেও সফল ব্যক্তিরা সচেতন থাকেন। বাইরে কোথাও ঘুরতে যাওয়া, বিশেষ দিনগুলোতে একে ওপরের সঙ্গে সময় কাটানো, ফোন করে খোঁজখবর নেওয়া-সবকিছুই তাঁরা দায়িত্বের সঙ্গে করে থাকেন।

ঘুমকে প্রাধান্য দেওয়া

কাজে প্রফুল্ল থাকতে হলে পর্যাপ্ত পরিমাণের ঘুম খুবই প্রয়োজন। তাই সফল ব্যক্তিরা ঘুমের ক্ষেত্রে অবহেলা করেন না। তাঁরা শত ব্যস্ততার মাঝেও ঠিক সময়ে ঘুমান এবং নিয়মিত সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুমান। যাতে পরের দিন কাজ করতে শারীরিকভাবে তিনি শক্তি পান।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here