সারাদেশে মনোনয়নপত্র বৈধ ২ হাজার ২৭৯, বাতিল ৭৮৬

0
48

ডেস্ক নিউজ, সময় সংবাদ বিডি-

ঢাকাঃ আসন্নএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সারাদেশে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন সর্বমোট ৩ হাজার ৬৫ জন। এদের মধ্যে মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছে মোট ২ হাজার ২৭৯ জনের। বাকি ৭৮৬ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে বাতিল বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

এদের মধ্যে ৩৯টি বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের দলীয় মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছে মোট ২ হাজার ১৬৫ জনের। আর স্বতন্ত্র থেকে বৈধ হয়েছেন ১১৪ জন বলে নির্বাচন কমিশন (ইসি) সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

ইসি সূত্র জানা গেছে, আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই শেষে বৈধ হয়েছে ২৭৮ জন, আর বাতিল হয় ৩ জনের।

বিএনপি থেকে বৈধ হয়েছে ৫৫৫ জন,আর বাতিল হয়েছে ১৪১ জন।

জাতীয় পার্টির থেকে বৈধ হয়েছে  ১৯৫ জন, বাতিল হয়েছে ৩৮ জন।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ থেকে বৈধ হয়েছে ২৮১ জন। আর  বাতিল হয়েছে ১৮  জনের।

লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি) থেকে বৈধ হয়েছে ১২ জন, আর বাতিল হয়েছে ৩ জন।

জাতীয় পার্টি (জেপি)  থেকে বৈধ হয়েছে ১৩ জন, আর বাতিল হয়েছে ৪ জন।

বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল থেকে বৈধ হয়েছে ২ জন, আর বাতিল হয়েছে ১ জন।

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ থেকে বৈধ হয়েছে ৩২ জন, আর বাতিল হয়েছে ৫ জন।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) থেকে বৈধ হয়েছে ৬৯ জন, আর বাতিল হয়েছে ৮ জন।

গণতন্ত্রী পার্টি থেকে বৈধ হয়েছে ৮ জনই।

বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি থেকে বৈধ হয়েছে ১১ জন, আর বাতিল হয়েছে ৩ জন।

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি থেকে বৈধ হয়েছে  ৩২ জন, আর বাতিল  হয়েছে ১ জন।

বিকল্পধারা বাংলাদেশ থেকে বৈধ হয়েছে  ২৪ জন, আর বাতিল হয়েছে ১৩ জন।

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) থেকে বৈধ হয়েছে ৩৯ জন, আর বাতিল হয়েছে ১৪ জন।

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) থেকে বৈধ হয়েছে ৪৪ জন, আর বাতিল হয়েছে ৭ জন।

জাকের পার্টি থেকে বৈধ হয়েছে ৭৩ জন, আর বাতিল হয়েছে ৩৫ জন।

বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) থেকে বৈধ হয়েছে ৪৩ জন, আর বাতিল হয়েছে ৬ জন।

বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (বিজেপি) থেকে বৈধ হয়েছে ৬ জন, আর বাতিল হয়েছে ৫ জন।

বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন থেকে ২০ বৈধ হয়েছে ২০ জনই।

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন থেকে বৈধ হয়েছে ২২ জন, আর বাতিল হয়েছে ৪ জন।

বাংলাদেশ মুসলিম লীগ থেকে বৈধ হয়েছে ৪০ জন, আর বাতিল হয়েছে ৯ জন।

ন্যাশনাল পিপলস পার্টি থেকে বৈধ হয়েছে ৭৩ জন, আর বাতিল হয়েছে ১৭ জন।

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশথেকে বৈধ হয়েছে ১৪ জন, আর বাতিল হয়েছে ১ জন।

গণফোরাম থেকে বৈধ হয়েছে ৪৪ জন, আর বাতিল হয়েছে ১৭ জন।

গণফ্রন্ট থেকে মনোনয়নপত্র বৈধ ১৪ জন, আর বাতিল হয়েছে২ জন।

প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দল (পিডিপি) বৈধ ১৪ জন, বাতিল হয়েছে ২ জন।

বাংলাদেশ ন্যাপ বৈধ ৫ জনই।

বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির কাঁঠাল প্রতিকের বৈধ ১১ জন, বাতিল হয়েছে ২ জন।

ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ বৈধ ২৩ জন, বাতিল হয়েছে ৫ জন।

বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির ৫ জনই বৈধ।

ইসলামী ঐক্যজোট  বৈধ ২৩ জন, বাতিল হয়েছে ৯ জন।

বাংলাদেশ খেলাফত মজলিম বৈধ ৯ জন, বাতিল হয়েছে ৩ জন।

বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট বৈধ ২১ জন, বাতিল ১ জন।

জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা) ৪জন, বাতিল ২ জন।

বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি বৈধ ২৭ জন, বাতিল ৩ জন।

খেলাফত মজলিশ বৈধ ১৩ জনই।

বাংলাদেশ মুসলিম লীগ (বিএমএল)  বৈধ ৬ জন, বাতিল ১১ জন।

বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট বৈধ ৩ জনই।

বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট (বিএনএফ)বৈধ ৫৬ জন, বাতিল ১৫ জন।

এদিকে মনোনয়ন বাতিল হওয়া প্রার্থীদের ৩ ডিসেম্বর থেকে আপিল গ্রহণ শুরু হয়েছে, চলবে ৫ ডিসেম্বরের বুধবার পর্যন্ত। ৮ ডিসেম্বর শুনানি করে সিদ্ধান্ত, ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ দিবেন ইসি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here