অবশেষে সব পোশাক কারখানা বন্ধের ঘোষণা

0


সময় সংবাদ বিডি- ঢাকা: দেশের সব তৈরি পোশাক কারখানা আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পোশাক মালিকদের দুই সংগঠন বিজিএমইএ ও বিকেএমইএ। তবে জরুরি কার্যাদেশ সরবরাহ ও পিপিই-মাস্কের মতো সুরক্ষা সরঞ্জাম তৈরিতে নিয়োজিত কারখানাগুলোর ক্ষেত্রে এ নির্দেশনা প্রযোজ্য হবে না।

সোমবার (৬ এপ্রিল) দুই সংগঠনের সভাপতি রুবানা হক ও এ কে এম সেলিম ওসমানের এক যৌথ বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিকেএমইএ’র ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ হাতেম এ- বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মহামারি আকার ধারণ করা করোনাভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সরকারের সাধারণ ছুটির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে বিজিএমইএ ও-বিকেএমইএ’র সদস্য প্রতিষ্ঠানগুলো আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তবে উল্লেখ থাকে যে, রফতানিমুখী শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে যাদের জরুরি রফতানি কার্যাদেশ রয়েছে এবং যেসব প্রতিষ্ঠান পিপিই, মাস্ক ইত্যাদি সুরক্ষা সরঞ্জাম তৈরি করছে, সেসব প্রতিষ্ঠান প্রয়োজনে খোলা রাখা যাবে বলে-এই উল্লেখ করা হয়েছে।

এ,বিবৃতিতে বলা হয়েছে,সে ক্ষেত্রে ওই সব কার খানাকে নিজ নিজ অ্যাসোসিয়েশন (বিজিএমইএ বা বিকেএমইএ), কল কারখানা পরিদর্শন অধিদফতর ও শিল্প পুলিশকে অবহিত করতে হবে। কারখানা ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত থাকলেও আগামী ১৬ এপ্রিলের মধ্যে কারখানার শ্রমিক-কর্মচারীদের মার্চ মাসের বেতন পরিশোধ করতেও অনুরোধ করা হয়েছে বিবৃতিতে।

এর আগে সোমবার সকালে বিজিএমইএ’র বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনাভাইরাসজনিত পরিস্থিতিতে সংগঠনের সদস্য কারখানা গুলোকে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ রাখার বিষয়ে অনুরোধ অব্যাহত রাখা হচ্ছে। একইসঙ্গে বিজিএমইএ’র সদস্য প্রতিষ্ঠানগুলোকে যত দ্রুতসম্ভব শ্রমিকদের মার্চ মাসের মজুরি দিতেও অনুরোধ জানানো হয়। পাশাপাশি বলা হয়েছে আপনারা সবাই সচেতন থাকবেন সরকারের নিয়মকানুন মেনে চলবেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here