আ’লীগের এমপি-মেয়রের সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত শতাধিক

0


সময় সংবাদ বিডি -ঢাকা:ছাতকে আওয়ামী লীগের বিবদমান দুই গ্রুপে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনায় পথচারীসহ শতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন। আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে পূর্ব সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বৃহস্পতিবার বিকালে খিদ্রাকাপন এলাকায় জাউয়াসহ ৫ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভা আহ্বান করে পৌর মেয়র কালাম চৌধুরী ও শামীম চৌধুরীর সমর্থকরা।
 
আওয়ামী লীগের একটি মিছিল খিদ্রাকাপন সভাস্থলে যাওয়ার পথে জাউয়াবাজারে এমপি মানিক সমর্থকরা হামলা চালায়। পরবর্তিতে মিছিলকারীরা সংঘবদ্ধ হয়ে প্রতিপক্ষকে পাল্টা ধাওয়া করে। একপর্যায়ে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও দফায় দফায় সংঘর্ষে জাউয়াবাজার থেকে খিদ্রাকাপন পর্যন্ত সড়ক রণক্ষেত্রে পরিণত হয়।
প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ২৬ রাউন্ড টিয়ারসেল ও ৫০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়েছে।
সংঘর্ষে আহতদের স্থানীয় কৈতক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। জাউয়া এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
 
এমপি মুহিবুর রহমান মানিক এবং পৌর মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী ও তার সহোদর শামীম আহমদ চৌধুরীর সমর্থকদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার বিকালে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের জাউয়াবাজার পুলিশ ফাঁড়ি এলাকায় এ সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ অর্ধশতাধিক রাউন্ড টিয়ারসেল ও ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে।
সংঘর্ষ চলাকালে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে যানচলাচল দেড় ঘণ্টা বন্ধ হয়ে যায়। সড়কের উভয় পাশে শত শত যাত্রী ও মালবাহী গাড়ি আটকা পড়ে যানজটের সৃষ্টি হয়।
 
জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এমপি মুহিবুর রহমান মানিক ও সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি নুরুল হুদা মুকুট পরস্পরকে কটূক্তির প্রতিবাদে গত দুই সপ্তাহ ধরে এখানের আওয়ামী লীগের বিবদান দুই গ্রুপের মধ্যে টান-টান উত্তেজনা বিরাজ করছিল।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here