আসন্ন কেশরহাট পৌর নির্বাচনঃ প্রচারণায় আ’লীগের তিন প্রার্থী

0


(বামে)বর্তমান মেয়র শহিদুজ্জামান শহিদ, (মাঝে)প্যানেল মেয়র রুস্তম আলী প্রামাণিক (ডানে) বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শাহিনুর রহমান শাহিন।

ডেস্ক নিউজ, সময় সংবাদ বিডি-
রাজশাহীঃ এবছরের শেষে আসন্ন কেশরহাট পৌরসভা নির্বাচনকে ঘিরে প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত সম্ভাব্য মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। এরইমধ্যে শুরু হয়েছে প্রচার প্রচারণা, বিভিন্ন ওয়ার্ডে টানানো হচ্ছে শুভেচ্ছা ফেস্টুন ও ব্যানার। সম্ভাব্য প্রার্থীরা ছুটছেন বিভিন্ন ওয়ার্ডের ভোটারদের কাছে।

নির্বাচনী মাঠে আওয়ামী লীগের রয়েছে একাধিক প্রার্থী। তবে বিএনপি থেকে কোন প্রার্থীর আনুষ্ঠানিক ঘোষনা এখনো পাওয়া যায়নি। সেক্ষেত্রে সাবেক মেয়র আলাউদ্দীন আলোর নাম লোকমুখে শোনা যাচ্ছে।

গত ২০০০ সালে স্থাপিত হয় কেশরহাট পৌরসভা। ৯ টি ওয়ার্ড ও ১৭ টি গ্রাম নিয়ে বর্তমানে খ শ্রেণির পৌরসভা এটি।

এবার নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ৩ জন প্রার্থী মাঠে নেমেছেন। কেশরহাট পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ব্যানারে প্রার্থী হতে চান উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র শহিদুজ্জামান শহিদ, মোহনপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও ১ নম্বর প্যানেল মেয়র রুস্তম আলী প্রামাণিক ও কেশরহাট পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শাহিনুর রহমান শাহিন।

প্রচারণায় এই তিন প্রার্থী বলছেন, দলীয়ভাবে যাকেই মনোনীত করা হবে তাকেই মেনে নিবেন তারা। আর এজন্য দলীয় মনোনয়ন পেতে সকল চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন এই তিন প্রার্থী।

নির্বাচনকে ঘিরে পুরো কেশরহাট জুড়ে চলছে উৎসবের আমেজ। চায়ের দোকান থকে শুরু করে সব জায়গায় চলছে নির্বাচনী আলোচনা। এছাড়াও প্রার্থীরা ছুটে বেড়াচ্ছেন ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে ভোটারদের দারে। প্রতিদিন বিভিন্ন ওয়ার্ডে চলছে কর্মিসভা ও মতবিনিময়। তবে দল বা মার্কা নয় সৎ যোগ্য প্রার্থীকেই ভোট দিবেন বলে জানান এলাকাবাসী।

এদিকে,শুধু মেয়র প্রার্থী নয়, কাউন্সিলর পদে প্রার্থীরাও নেমেছেন গণসংযোগে। বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভোটারদের মন জয় করার চেষ্টায় ব্যস্ত সবাই।

সরেজমিনে দেখা যায়, সোমবার সন্ধায় পৌর এলাকার ৩ নং ওয়ার্ডের বিদির্কা উত্তর পাড়ায় ভোটারদের সাথে মতবিনিময় করেন বর্তমান মেয়র শহিদুজ্জামান শহিদ। এসময় তিনি ভোটারদের কাছে বলেন, পৌরসভার কর্মব্যস্ততায় তিনি কর্মিসভা বা মতবিনিময় করার খুব একটা সুযোগ পাচ্ছেননা। তাছাড়া তিনি ভোটারদের সাথে মতবিনিময় করার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

তিনি বলেন, এলাকার অনেক কাজ তিনি করেছেন। তবে কিছু কাজ অসম্পূর্ণ রয়েছে যা আগামীতে পুনরায় নির্বাচিত হয়ে তিনি সম্পুর্ন করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। এসময় তিনি সকলের সাথে চলাফেরায় ভুলভ্রান্তি হলে ক্ষমা প্রার্থনা করেন এবং পুনরায় ভোট দিয়ে তাকে নির্বাচিত করার জন্য সকলের প্রতি অনুরোধ জানান।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here