করোনা কালে সাংবাদিকের ওপর হামলা কেন?

0



ডেস্ক নিউজ, সময় সংবাদ বিডি-
রাজশাহীঃ চলমান করোনা সংকটের মধ্যে যখন সাংবাদিকদের জীবন বাজিরেখে সংবাদ সংগ্রহ করে চলেছে ঠিক সে সময় রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার স্থানীয় এক সাংবাদিক দুর্বৃত্তদের হামলার শিকার হয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন আছেন। তিনি মো. শাহিন সাগর। রাজশাহীর স্থানীয় পত্রিকা ‘দৈনিক রাজশাহী সংবাদ’ এর মোহনপুর প্রতিনিধি হসেবে দ্বায়িত্বরত আছেন।

সোমবার সন্ধ্যার দিকে উপজেলার ধুরইল বাজার সংলগ্ন এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় মাথা ফেটে যাওয়ায় বেশকয়টি সেলাই দিতে হয়েছে।

তবে কি কারনে তার ওপর হামলা হয়েছে? এমন প্রশ্নের উত্তর জেনে হতবাক হতে হয়েছে আমাদের।

তিনি হামলার শিকার হয়েছেন, মোহনপুর উপজেলার ধুরইল বাজারে পানের বাজার বসা নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করার কারনে।

এখন জেনে নেয়া যাক, পানের বাজার বসা নিয়ে তিনি কি সংবাদ প্রকাশ করেছেন?

জানা গেছে, সম্প্রতি চলমান করোনার প্রাদুর্ভাব রোধে জেলার সর্বত্রই লকডাউন ঘোষণা করে জেলা প্রশাসক। এমন অবস্থায় দৈনিক রাজশাহী সংবাদ পত্রিকায় লকডাউনের মধ্যে মোহনপুরে রাতের বেলায় হাট, পুকুর খননসহ প্রভাবশালীদের বিভিন্ন অনিয়মের বিষয়ে সংবাদ প্রকাশ করা হয়। এরই জের ধরে তার উপর পরিকল্পীতভাবে হামলা চালানো হয়েছে বলে দাবি করেন শাহীন সাগর।

তিনি বলেন, লকডাউনের মধ্যে উপজেলা প্রশাসন সকল হাটবাজার বন্ধ ঘোষণা করেন। এর পরও কিছু প্রভাবশালী অসাদু ব্যাবসায়ীদের দৌরাত্ম্য ব্যাপক হারে বেড়ে যায়। তারা প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে রাতের বেলা পানের হাট বসায়। যা করোনা প্রাদুর্ভাবের ঝুকি চরম আকারে বেড়ে যায়। এমতাবস্থায় আমি জনকল্যাণে এই সংবাদ প্রকাশ করি।

যাকে কেন্দ্র করে হাট ইজারাদার ও স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী আমার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হামলা চালায়। এতে আমার মাথা ফেটে যায় ও শরীরের বেশকিছু স্থানে জখম হয়।

শাহিন সাগর জানান, সোমবার সন্ধ্যায় ধুরইল বাজার থেকে ফলমূল ও প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনে বাড়ি ফিরছিলেন। ফেরার পথে ওই গ্রামের সাবেক মেম্বার আক্কাস আলী বাড়ীর দক্ষিণ পাশে দক্ষিন পূর্বদিকের বিল্ডিংয়ের কাছে আসা মাত্রই ওঁত পেতে থাকা দূর্বৃত্তরা বৃষ্টির মত তার দিকে ইট ছুড়তে থাকে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করেন।

মাথার ক্ষত বেশি হওয়ায় গ্রাম্য ডাক্তার চিকিৎসা দিতে অপারগ হলে তাকে মোহনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা চিকিৎসা প্রদান করে। তার মাথায় ৪টি সেলাই দেয়া হয়েছে।

এদিকে,তার উপর হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে রাজশাহী সংবাদ পত্রিকার সম্পাদক আহসান হাবীব অপু বলেন, সাংবাদিক শাহিন সাগরের উপর এমন হামলার তীব্র নিন্দা জানাই। সেই সাথে দোষীদের সনাক্ত করে দ্রুত বিচারের আওতায় নিয়ে আসার দাবি জানাচ্ছি। এছাড়াও তার উপর হামলার প্রতিবাদ জানিয়েছে সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠন।

উল্লেখ্য, জনকল্যাণমুখী সংবাদ প্রকাশে সাংবাদিকদের ওপর এভাবে হমলা হতে থাকলে সংবাদিক সমাজ মুখ থুবড়ে পড়বে। তাই যতদ্রুত সম্ভব হামলাকারীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। এবং সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here