কে হচ্ছেন ব্রিটেনের নতুন কান্ডারি?

0


27103

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, সময় সংবাদ বিডি

ঢাকা: ওয়েস্ট মিনিস্টার ধাচের গণতন্ত্রের সূতিকাগার নামে পরিচিত দেশ ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচন আগামী ৭ মে। ১২১৫ সালে ম্যাগনাকার্টা চুক্তির মধ্য দিয়ে যে গণতন্ত্রের যাত্রা শুরু হয়েছিল দেশটিতে, গণতন্ত্রের এ ধারাবাহিকতা এখন বিশ্বব্যাপী অনুসরণ করা হচ্ছে। তিনদিন পরের এই নির্বাচন নিয়ে ব্রিটেনে চলছে এখন নানা হিসেব-নিকেশ। কে হচ্ছেন দেশটির পরবর্তী কাণ্ডারি? এ প্রশ্নের স্পষ্ট উত্তর এখনো অনেকের কাছে অজানা।

ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচনে লড়ছে এমন সবকটি দল তাদের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছে। সব ইশতেহারের একটি জায়গায় মিল খুব বেশি। সেটি হল- প্রত্যেকটি দল নিজেদেরকে শ্রমিক কল্যাণে নিবেদিত বলে উল্লেখ করেছে।

ইশতেহার ঘোষণার পরও ক্ষমতায় যাবে কোন দলটি খোদ ব্রিটিশ পত্রিকার জরিপও সেই কুয়াশা কাটিয়ে উঠতে পারছে না। তাদের ধারণা, এবারের নির্বাচনও একটি ঝুলন্ত সংসদ উপহার দেবে।সেক্ষেত্রে কোনো দলই সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজনীয় ৩২৬টি আসন এককভাবে দখল করতে পারছে না। ব্রিটেনের সংসদের নিন্ম কক্ষ হাউজ অব কমন্সের মোট আসন সংখ্যা ৬৫০টি।সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজন হয় ৩২৬টি আসন।

ফলে সরকার গঠন করতে কনজারভেটিভ পার্টি বা লেবার পার্টিকে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (লিবডেম), স্কটিশ ন্যাশানালিস্ট পার্টি (এসএনপি), ইউনাইটেড কিংডম ইন্ডিপেন্ডেন্ট পার্টি (ইউকেআইপি) বা গ্রিন পার্টির উপর নির্ভর করতে হতে পারে।

কিন্তু ব্রিটেনের নির্বাচনে মানুষ কাকে কাণ্ডারি নির্বাচিত করেন তার ফল পেতে অপেক্ষা করতে হবে আগামী ৮ মে পর্যন্ত।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here