ছেলেটাক্রমে পুরুষ হয়ে ওঠে

0


কবিতা:পুরুষ্ঠ
কবি:মৃত্তিকা মৃন্ময়ী রায়✓

ছেলেটাক্রমে পুরুষ হয়ে ওঠে।

হাতেপায়ে গোপনাঙ্গে লোম গজায়।

কণ্ঠের হাড় ফুটে ওঠে।
স্বর ভাঙ্গে।
মুখ ভর্তি আগাছা জন্মায়।
বুক ভর্তি হরমোনাল ক্রাইসিস তড়পায়।
এভাবেই দিনে দিনে ছেলেটা রোজ পুরুষ হয়ে ওঠে।

এলোমেলো উস্কোখুস্কো মাথার চুলে কোথায় যেন বেহাগের সুর।
ছেলেটা আর ঘুড়ি ওড়ায় না।
চাঁদ তার কাছে মোহময়ীর এলোপাথাড়ি চুলের সমুদ্দুর।
দিস্তা দিস্তা কাগজ কিনে খিস্তি মেরে বিরহের কবিতা লেখে সে।
এভাবেই দিনে দিনে ছেলেটা রোজ পুরুষ হয়ে ওঠে।

ভীষণ কষ্টে মায়ের বুকে মুখ লুকাত যে
প্রত্যাখ্যানের অভিঘাতে আশ্রয় নেয় তরল বিষের পেয়ালাতে ।
বিশাল বড়ো গাঁজার মোড়ক চোঁ চোঁ টেনে
গোঁ গোঁ করে গোঁঙাতে থাকে খুব রেয়াতে।

নষ্ট রাতের স্বপ্নদোষের সাক্ষী থাকে বিছানা বালিশ অন্তর্বাস আর নিংড়ে যাওয়া মন।
এভাবেই বুঝি পুরুষ্ট হয় বীজ।
এভাবেই ছেলেটা ক্রমে পুরুষ হয়ে ওঠে। (অংশত)

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here