জীবিকার তাগিদে-জীবনের ঝুঁকি নিয়েই বিভিন্ন পন্থায় রাজধানীতে ফিরছে মানুষ

0


সময় সংবাদ বিডি-ঢাকা: জীবিকার তাগিদে জীবনের ঝুঁকি নিয়েই বিভিন্ন পন্থায় রাজধানীতে ফিরছে মানুষ। আগামিকাল রবিবার অফিস খোলার কারনে আজ শনিবার সকাল থেকেই ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানবাহনের অতিরিক্ত চাপ দেখা যাচ্ছে।

ঈদ উদযাপন শেষে কর্মস্থলে ফিরছে মানুষ।গণপরিবহন না থাকলেও বিপুল পরিমান মাইক্রোবাস প্রাইভেটকার, সিএনজি চালিত অটোরিক্সা ও মোটর সাইকেল ‘উবার’ বা পাঠাও’ যোগে ঢাকার বিভিন্ন স্থানে যাচ্ছে মানুষ । অনেক জায়গাতে যাত্রীদেরকে যানবাহনের জন্য অপেক্ষা করতে দেখা গেছে। আর এই সুযেগে মাইক্রোবাস গুলোতে আসন সংখ্যার বেশী যাত্রী পরিবহন করছে চালকেরা। আজ আর সরোজমিনে ঢাকা শহর ঘুরে এমন চিত্র দেখা যায়।

শুধু তাই নয়,গণপরিবহণ না থাকায় বাড়তি ভাড়া দিয়েই কর্মস্থলে যাচ্ছে মানুষ। এতে করে একদিকে যেমন বাড়তি ভাড়া দিতে হচ্ছে, অপরদিকে স্বাস্থ্য ঝুঁকি নিয়েই সামাজিক দুরত্ব না” মেনে ভাড়ায় চালিত মাইক্রোবাস প্রাইভেটকার সিএনজি নিয়ে গাদাগাদি করে যেতে হচ্ছে যাত্রীদের। এতে করে সংক্রমণের ঝুঁকি বেড়ে যাচ্ছে।

অন্যদিকে উত্তর বঙ্গের ১৭টিসহ মহাসড়ক দিয়ে ২৩টি জেলার যানবাহন চলাচল করছে।
আজ দুপুর নাগাদ”রাজধানীর কমলাপুরে এক যাত্রী সঙ্গে আলাপ করে জানা যায়, গণপরিবহন বন্ধ থাকায় ঢাকায় কর্মস্থলে ফেরা মানুষরা কিছুটা ভোগান্তিতে পরেছে, এবং”অন্তিরিক্ত টাকা খরচ করে কর্মস্থলে ফিরতে হচ্ছে তাদের। এমনটাই বলছে ঢাকামুখী যাত্রীরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here