টঙ্গীতে পোশাক কারখানার শ্রমিকদের বিক্ষোভ-পুলিশের সঙ্গে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার-আহত ১০

0


জাহাঙ্গীর আকন্দ টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি:সময় সংবাদ বিডি-ঢাকা: গাজীপুরের টঙ্গীতে কারখানা বন্ধ দেয়ার দাবিতে বিক্ষোভ করেছে পোশাক কারখানার শ্রমিকরা। শনিবার সকালে কাজে যোগ দিতে এসে কারখনার প্রধান ফটকে নোটিশ দেখে বিক্ষোভ করে। পরে গাজীপুরা এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করেন।
এসময় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ টিয়ার শেল ও শটগানের গুলি ছোড়লে অন্তত ১০ শ্রমিক আহত হওয়ার সংবাদ পাওয়া গেছে। গাজীপুর শিল্প সহকারী পুলিশ সুপার এস আলম জানান, আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে দশ দিনের ছুটির জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানান শ্রমিকরা।

দশ দিনের ছুটির দাবিতে আট দিন ছুটি ঘোষনা নির্দেশ দেয়া হলেও গত কয়েকদিন কারখানার ভেতরে শ্রমিকরা বিক্ষোভ শুরু করে। পরে শনিবার শ্রমিকদের দাবি মেনে না নিয়ে কারখানা বন্ধের নোটিশ দেয়া হলে শনিবার সকাল থেকে কারখানার প্রধান ফটকে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে।

ওই কর্মকর্তা আরো জানান,সকাল ৮ টার দিকে শ্রমিকরা কারখানার পাশের ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ওপর অবস্থান নিয়ে অবরোধ করে। এতে মহাসড়কের উভয় দিকে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে দীর্ঘ জটের সৃষ্টি হয়। এ সময় ক্ষুব্ধ হয়ে আন্দোলনরত শ্রমিকরা মহাসড়কে গাড়ি ও ঢিল ছুড়ে বিভিন্ন স্থাপনায় ভাঙচুর করে।
পুলিশ বাধা দিলে শ্রমিকরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাথর ছুড়তে থাকেন। পুলিশ লাঠিচার্জ করলে শ্রমিকদের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়।

এ ঘটনায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে হয়েছেন। এক পর্যায়ে পুলিশ ১০-১২ রাউন্ড টিয়ার শেল ও শটগানের গুলি ছোড়ে।
প্রায় একঘণ্টা পর মহাসড়কে যানবাহন চলা শুরু হয়।কারখানাটির মানব সম্পদ বিভাগের প্রধান আবু হেনা মোস্তফা কামাল বলেন,শ্রমিকদের দশ দিনের ছুটির দাবিতে আট দিনের ছুটি মঞ্জুর করা হয়েছে। এই আন্দোলনটি অযৌক্তিক।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here