টঙ্গীতে যুব মহিলা লীগ নেত্রীর বিরুদ্ধে থানায় অপহরণ মামলা

0


জাহাঙ্গীর আকন্দ,টঙ্গী প্রতিনিধি: গাজীপুর সময় সংবাদ বিডি- ঢাকা: টঙ্গীর দত্তপাড়া নতুন এক শিল্পী আক্তার (২৭) এর অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে গেছে। জানা যায় শিল্পী আক্তার এর ভাই মুন্নার (২৪) নেতৃত্বে এসকল অপরাধ সংঘটিত হয়। সূত্রে জানা গেছে টংগীতে ভাড়া বাসায় থাকতেন জালাল (২৫), খোকন (২৭) ও মোঃ রনি (৩০)

তাদের তিনজন কে মিথ্যা চুরির অপবাদ দিয়ে মোসা শিল্পী ও তার ভাই মুন্না একটি নির্জন স্থানে আটক করে অত্যাচার নির্যাতন করে। এবং দীর্ঘ নয় দিন তাদের একটি অন্ধকার ঘরে আটকে রাখে। এছাড়া তাদের হাতে থাকা নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন নিয়ে যায়।
এবিষয়ে টঙ্গী পূর্ব থানার এসআই মোঃ শাহিন মোল্লা বলেন আমরা এই অভিযোগ পাওয়া মাত্রই বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান পরিচালনা করে লো লো জিম্মিদের একটি অন্ধকার ঘরে থেকে উদ্ধার করি। এবং শিল্পীর ভাই মুন্না কে আটক করি। এসময় অভিযান পরিচালনা করেন এস আই মোঃ শাহিন মোল্লা ও এস আই আব্দুস সালাম।
সুত্রে আরো জানা যায় টঙ্গী পূর্ব থানার মামলা নং ১৮ (৭)২০২০ ধারা- ৩৬৫/৩৮৬/৩৮৭/৩২৩/৫০৬ পেনাল কোড,টঙ্গী পূর্ব থানার দত্তপাড়া এলাকায় নুতন করে শিল্পি গ্রুপের অত্যাচারে অতিষ্ঠিত অত্র এলাকার নিরীহ জনগন। গত০২/৭/২০২০ তাং অভিনব কৌশলে কথিত চুরির অপবাদ সাজিয় ০৩ জনকে অপহরন করে ০৯ দিন আটক রেখে অপহৃতদের মোবাইল ও টাকা লুন্ঠন করে নেয় এবং মুক্তিপন বাবদ তিন লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এসময় ভুক্তভোগীরা ১০ হাজার টাকা বিকাশের মাধ্যমে তাদের দিলে তাঁরা বাকি টাকার জন্য একটি অন্ধকার ঘরে আটকে রাখে। অবশেষে এস আই মোঃ শাহিন মোল্লা ও এস আই আব্দুস সালাম এর নেতৃত্বে অপহৃত ০৩ জনকে আসামী শিল্পি আক্তারের সকল বাড়িতে অভিযান চালিয়ে শিল্পী আক্তার বাড়ী থেকে ব্যাপক অভিযান পরিচালনা করিয়া অপহৃত তিনজন কে উদ্ধার করা হয়। আসামী শিল্পি আক্তারকেও গ্রেফতার অভিযান অব্যহত আছে। এবিষয়ে টঙ্গী পূর্ব থানার ওসি মুহাম্মদ আমিনুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here