ডা.সাবরিনা চৌধুরী তথ্য জালিয়াতি করে দুটি জাতীয় পরিচয়পত্র:মামলা করছে ইসি

0


ডা.সাবরিনা চৌধুরী দুটি এনআইডিতে স্বামীর নাম ভিন্ন,তথ্য জালিয়াতি করে দুই এলাকায় ভোটার হওয়া এবং দুটি জাতীয় পরিচয়পত্র নেয়ায়: মামলা করছে ইসি।

সময় সংবাদ বিডি-ঢাকা: কোভিড-১৯ টেস্ট নিয়ে প্রতারণার অভিযোগে গ্রেপ্তার জেকেজি হেলথ কেয়ারের চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে নির্বাচন কমিশন (ইসি) ।

তথ্য জালিয়াতি করে দুই এলাকায় ভোটার হওয়া এবং দুটি জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) নেয়ায় জন্য, মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে ইসি । এবিষয়ে জাতীয় পরিচয়পত্রের মহাপরিচালককে নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইসির সিনিয়র সচিব মো:আলমগীর। ইসি সচিব জানান,এন আইডি অনুবিভাগের মহাপরিচালককে মামলা করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশন ভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব তথ্য জানান ইসি সচিব মো: আলমগীর। ইসি সচিব আলমগীর এসময় আরো বলেন,সাবরিনার দ্বিতীয় এনআইডি ব্লক করে দেয়া হয়েছে। কোন প্রক্রিয়ায়,কার সুপারিশে তিনি দ্বিতীয়বার ভোটার হয়েছেন- আমাদের কেউ কোনো অসৎ উদ্দেশ্যে সহায়তা করেছেন কি-না, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

কোভিড-১৯ টেস্ট নিয়ে প্রতারণার অভিযোগে গ্রেপ্তার বহুল আলোচিত জেকেজি হেলথকেয়ারের চেয়ারম্যান ডা.সাবরিনা চৌধুরী জাতীয় পরিচয় পত্র দুটিতে ভিন্ন তথ্য ব্যবহার করা হয়েছে। এর একটিতে জন্মতারিখ ২ ডিসেম্বর ১৯৭৮। অপরটিতে ২ ডিসেম্বর ১৯৮৩। এক্ষেত্রে বয়স পাঁচ বছর কমানো হয়েছে। দুটি এনআইডিতে স্বামীর নামও ভিন্ন। একাধিক স্থায়ী ও বর্তমান ঠিকানা ব্যবহার করে ভোটার হন ডা.সাবরীনা।

সম্প্রতি দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) সাবরীনার একাধিক জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর নির্বাচন কমিশনে (ইসি) পাঠিয়েছে। ওই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে এ ঘটনা খতিয়ে দেখছে কমিশন। এ বিষয়ে এনআইডি অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো: সাইদুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, ইতোমধ্যে মৌখিকভাবে নির্দেশনা সংশ্লিষ্ট থানা নির্বাচন কর্মকর্তাকে দেয়া হয়েছে। এর পরও আমরা একটা চিঠি দিচ্ছি মোহাম্মদপুর থানায় মামলা করার জন্য। আমরা অতীতেও অনেকের বিরুদ্ধে তথ্য গোপন করে দ্বিতীয়বার ভোটার হওয়ার কারণে মামলা দিয়েছি। কাউকেই ছাড় দেইনি। এ ঘটনায় জড়িতদেরও ছাড় দেয়া হবে না।

করোনা ভাইরাস পরীক্ষার টেস্ট না করেই রিপোর্ট ডেলিভারি দেয়ার অভিযোগে জেকেজি হেলথ কেয়ারের চেয়ারম্যান ডা.সাবরীনা চৌধুরীকে ১২ জুলাই গ্রেপ্তার করা হয়। সরকারি চাকরিতে থাকা অবস্থায় বেসরকারি প্রতিষ্ঠান জেকেজির সঙ্গে যুক্ত হওয়ায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here