দাসিয়ারছড়ায় ছিটমহল বিনিময়ের পাঁচ বছর পূর্তি পালন

0


নিজস্ব প্রতিবেদক, সময় সংবাদ বিডি:
সাবেক ছিটমহল দাসিয়ারছড়ায় ছিটমহল বিনিময়ের পঞ্চম বর্ষপূর্তি ও ষষ্ঠ বর্ষে পর্দাপণ উপলক্ষে ৬৮টি মোমবাতি প্রজ্জ্বলন ও নানা আয়োজনের মাধ্যমে বর্ষপূর্তি পালন। শুক্রবার (৩১ জুলাই) দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে পৃথকভাবে  ভারত-বাংলাদেশ ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির নিজস্ব কার্যালয় ও দাসিয়ারছড়া বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠের শহীদ মিনারে পঞ্চম বর্ষপূর্তি ও ষষ্ঠ বর্ষে পর্দাপণে ৬৮টি মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করে বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হয়। তারা মোমবাতি প্রজ্জ্বলন শেষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পন করেন।

সাবেক ভারত-বাংলাদেশ ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির কার্যালয়ে মোমবাতি প্রজ্জলন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ভারত-বাংলাদেশ ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, দাসিয়ারছড়া ইউনিটের সাবেক আহবায়ক আলতাফ হোসেন, সাবেক অন্যতম সদস্য মনির হোসেন, শেখ ফজিলাতুন্নেছা দাখিল মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

অপরদিকে দাসিয়ারছড়া বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, উপ-কর কমিশনার মিজানুর রহমান উল্লাস, ফুলবাড়ী উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আবুবক্কর সিদ্দিক মিলন, ফুলবাড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি এমদাদুল হক মিলন, ফুলবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ, ইঞ্জিনিয়ার কামরুজ্জামান মুরাদ, দাসিয়ারছড়া ছাত্রলীগের আহবায়ক জাকির সরকার প্রমুখ।

এছাড়াও শনিবার (১ আগস্ট) সূর্যোদয়ের সাথে সাথে প্রতিটি বাড়িতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও পবিত্র ঈদুল আযহা’র ঈদের নামাজের পর প্রতিটি ঈদগাহ মাঠে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল এবং মন্দিরে বিশেষ প্রার্থনা করা হবে। দিনব্যাপি নানান কর্মসূচীর শেষে বিকেলে অনুষ্ঠিত হবে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী হা-ডু-ডু খেলা। ছিটমহল বিনিময়ের ৫ বছরে প্রত্যাশার চেয়ে ব্যাপক উনয়ন প্রাপ্তি হওয়ায় খুশি বিলুপ্ত ছিটমহলের বাসিন্দারা।

উলেখ্য, ২০১৫ সালের ৩১ জুলাই মধ্য রাতে বাংলাদশ ও ভারত মুজিব-ইদিরা সীমান্ত চুক্তি’র বাস্তাবায়ন করেন বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই দিন বাংলাদেশের অভ্যান্তরের ভারতীয় ১১১টি ছিটমহল এবং ভারতের অভ্যান্তরে অবস্থিত বাংলাদেশের ৫১ টি ছিটমহল দুই-দেশের ভু-খন্ডে যুক্ত হয়। নাগরিকেরা হয়ে যান স্বাধীন। অবসান ঘটে দীর্ঘ ৬৮ বছরের বঞ্চনার।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here