ফুলবাড়ীতে ৩দিনব্যাপী ঐতিহ্যবাহী ঘোড়দৌড় প্রতিযোগীতা

0
388

fulbarikurigram-horse-photo-1নুরনবী মিয়া, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি সময় সংবাদ বিডি-
বিজয়ের মাসে গ্রামঞ্চলের মানুষকে আনন্দ দিতে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে শুরু হয়েছে ৩দিন ব্যাপী গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতা । গত শুক্রবার বিকেলে উপজেলার সদর ইউনিয়নের কুটিচন্দ্রখানা বিস্তীর্ণ ফসলের মাঠে ব্যতিক্রমী এ প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করা হয়। বীরমুক্তিযোদ্ধা সুরোতজামানের পরিচালনায় প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা থেকে আসা ৩৮টি দৌড়ের ঘোড়া অংশ নেয়। তারা মানুষকে আনন্দ দেয়ার জন্য সুদূর ভুরুঙ্গামারী, কচাকাটা, মাদারগঞ্জ, নাখারগঞ্জ, চিলমারী ও গাইবান্ধা থেকে ঘোড়া নিয়ে এসেছে। খেলাকে ঘিরে উল্লাসে মুখরিত হয়ে ওঠেছে কুটিচন্দ্রখানা গ্রাম।

দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবছর শীত মৌসুমে ওই এলাকার যুবকদের উদ্যোগে ঐতিহ্যবাহী লাঠিখেলা ও দারিয়াবান্ধা(ঠুস) খেলা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। এবার প্রথম  ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। এ ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতা উপভোগ করতে নেমে আসে দূর-দূরান্তের মানুষের ঢল। কুটিচন্দ্রখানা এলাকায় সারা উপজেলার বাহিরের উপজেলার হাজার হাজার নারী-পুরুষ ও উৎসুক শিশুরা প্রতিযোগিতা স্থলে উপস্থিত হন । প্রচন্ড ভীড় উপেক্ষা করে অধির আগ্রহে উপভোগ করে দর্শকরা।

ঘোড়দৌড় প্রতিযোগীতায় আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে উদ্বোধনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দেবেন্দ্রনাথ উরাঁও, সদর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান হারুন অর রশীদ, উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক আবুবক্কর সিদ্দীক মিলন।

খেলা উদযাপন কমিটি জানায়,     প্রথম দিনে ৩৮টি ঘোড়াই অংশ নিয়েছে। আজ শনিবার এদের মধ্য থেকে  ১৬টি ঘোড়াকে প্রতিযোগীতায় নামানো হয়। এবং আগামীকাল রবিবার প্রতিযোগীতার মাধ্যমে এ ১৬টি ঘোড়া থেকে বিজয়ী নির্বাচিত করা হবে। প্রতিযোগিতায় প্রথমস্থান অর্জনকারী ঘোড়ার মালিককে পুরস্কার হিসেবে একটি গরু, দ্বিতীয় স্থান অধিকারী ঘোড়ার মালিককে ছাগল ও তৃতীয় স্থান অধিকারীকে একটি মোবাইল ফোন উপহার দিয়ে পুরস্কৃত করা হবে। এ ছাড়াও প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া সব ঘোড়ার মালিকের জন্য সান্ত্বনা পুরস্কার রয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here