বামন গ্রহ সেরেসে মহাকাশযান ডন

0


year-of-Discovery-inner_the

স্টাফ রিপোর্টার, সময় সংবাদ বিডি-

ঢাকাঃ বহুল আলোচিত বামন গ্রহ সেরেসে প্রথম মহাকাশযান পাঠাল নাসা। প্রায় আট বছর লম্বা ভ্রমণের পর মহাকাশযান ডন সেরেসে পৌঁছে বলে জানিয়েছে নাসার।

নাসার গবেষকরা জানান, মহাকাশযান ডন বছরখানেক সেরেসকে প্রদক্ষিণ করবে এবং এর পৃষ্ঠ পর্যবেক্ষণ করবে। একেবারে নির্বিঘ্নে সেরেসকে ঘিরে ডন ঘুরপাক খাচ্ছে বলে আরও জানান তারা। সেরেসে পৌঁছাতে ডন মহাকাশযানকে ৩ বিলিয়ন মাইল পথ পাড়ি দিতে হয়েছে আর তা সম্ভব হয়েছে এর আয়ন প্রোপালশন এঞ্জিনের দক্ষতার কারণে। এই এঞ্জিন প্রচলিত থ্রাস্টারের চাইতে অনেক কার্যকরী। বর্তমানে সেরেসের ছায়ায় অবস্থান করছে ডন। এপ্রিলে এর ছায়া থেকে বের হবার পরেই সে নতুন করে ছবি পাঠানো শুরু করবে।

১৮০১ সালে আবিষ্কৃত হওয়া সেরেসের ব্যাস ৬০০ মাইল এবং এর কেন্দ্রটি পাথুরে। রোমান কৃষিকার্যের দেবীর নামে এর নামকরণ করা হয়। প্রথমে একে গ্রহ বলে ধারণা করা হলেও পরে গ্রহাণু হিসেবে একে ধরা হয়। পরবর্তীতে একে বামন গ্রহ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। গ্রহদের মতো এর শরীরটাও গোলাকার, তবে এর আশেপাশে কাছাকাছি আকৃতির আরও অনেক জ্যোতিষ্ক থাকতে পারে।

ডন মহাকাশযানের সোলার উইং ছড়িয়ে রাখা অবস্থায় এর দৈর্ঘ্য ৬৫ ফিট। এতে রয়েছে ইনফ্রারেড স্পেক্ট্রোমিটার এবং একটি গামা রে ও নিউট্রন ডিটেক্টর যা দিয়ে সে কক্ষপথে থেকে সেরেসকে পর্যবেক্ষণ করবে। প্রদক্ষিণের শুরুতে ডন ছিলো সেরেস থেকে ৩৮ হাজার মাইল দূরে। আগামী কয়েক মাসের মধ্যে সে এই কক্ষপথ ছোট করতে করতে সেরেসের ২৩৫ মাইলের মাঝে পৌঁছে যাবে এবং মিশন শেষ হবার পরেও সেখানেই থেকে যাবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here