মহাখালী সাততলা এলাকায় চাঁদাবাজি করার সময় জনতার হাতে আটক ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেট

0


দেলোয়ার হোসেন, সময় সংবাদ বিডি- ঢাকা:রাজধানী মহাখালী সাততলা এলাকায় নিজেকে ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দিয়ে চাঁদাবাজি করার সময় হাতেনাতে ধরে ফেলেন, এলাকায় স্থানীয় জনগণ। পরে তাকে,হস্তান্তর করাহয় পার্শ্ববর্তী মহাখালীর সাততলা এলাকায় পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই ফাহাদ এর কাছে।

স্থানীয় এলাকাবাসীরা সূত্রে:জানান যায়,ভুয়া
ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয়দানকারী নাগিব মোস্তফা (নিপুর )কাছ থেকে একটি অকি টকি,দুটি মোবাইল ,একটি সিকিউরিটি কোম্পানির আইডি কার্ড ও একটি হাঙ্ক মোটরসাইকেল এবং বেশকিছু নগদ টাকা পাওয়া যায় ৷ এগুলো সহ- তাকে চাঁদাবাজি করার সময় হাতেনাতে ধরে ফেলেন তারা। এবং এরপর পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন।

স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে, আরো জানা যায় মহাখালী সাততলা এলাকায় বেশ কিছু দোকান খোলা থাকলে ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দানকারী মুস্তাফিজ দোকা মালিকদেরকে নিজেকে ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দিয়ে দোকান খোলার কারণ জানতে চায়, এবং জরিমানার ভয় দেখিয়ে বিভিন্ন দোকান থেকে বেশ কিছু টাকা নগদ অর্থ হাতিয়ে নেন। ঠিক এই সময়,বিষয়টি আঁচ করতে পেরে এলাকার স্থানীয় লোকজন,এরপরে চ্যালেঞ্জ করলে ভূয়া ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয়দানকারী (নাগিব মুস্তাফিজ) একপর্যায়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে স্থানীয় লোকজন ধরে ফেলে। এরপর পার্শ্ববর্তী সাততালা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই ফাহাদ এর নিকট হস্তান্তর করেন।

উক্ত বিষয় সময় সংবাদ বিডির প্রতিনিধি
দেলোয়ার হোসেন জানতে চাইলে,সাততলা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ফাহাদ, জানান কোর্ট বন্ধ থাকায় আমরা নিয়মিত মামলা করতে পারিনি,তাই ভ্রাম্যমাণ আদালত ডেকে ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজের শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে বলে তিনি নিশ্চিত করেছে।

ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের কোন দুর্ঘটনা না ঘটতে পারে সে ব্যাপারেও সবাইকে সজাগ থাকতে হবে- শেষ খবর লেখা পর্যন্ত ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয়দানকারী মুস্তাফিজকে বনানী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে ৷ এই ঘটনাটি ঘটে গতকাল-ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয়দানকারী মুস্তাফিজের দেশের বাড়ি নওগাঁ জেলায়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here