রাজধানীর মহাখালীতে আই,এইচ,টি প্যারামেডিকেল এর খেলার মাঠ দখল করে বহুতল ভবন নির্মাণের পায়তারা করছে একটি কুচক্রী মহল

0


সময় সংবাদ বিডি -ঢাকা:দেলোয়ার হোসেন: মহাখালী আই’ এইচ,টি প্যারামেডিকেল এর খেলার মাঠ দখল করে বহুতল ভবন নির্মাণের পায়তারা ক্ষোভে ফেটে পড়েছে এলাকাবাসী৷ রাজধানীর মহাখালীতে দীর্ঘ ৫০ বছরের পুরাতোন ঐতিহ্যবাহী আই,এইচটি, ইন্সটিউট ত্র অবস্থিত মহাখালীর ৬৬,হাজার জনগণের একমাত্র খেলার মাঠে বহুতল ভবন নির্মাণ করে খেলার মাঠ টি বিলুপ্ত করার পায়তারা করছে একটি কুচক্রী মহল ৷

এলাকাবাসী সূত্রে জানা,যায় অত্র মহাখালী অঞ্চলে আই,এইচ,টি প্যারামেডিকেল অত্র এলাকার একটি মাত্র খেলার মাঠ,উক্ত মাঠে সকাল বিকাল দুই সেশনে ছোট-বড় সকলেই ক্রিকেট,ফুটবল,ব্যাডমিন্টন সহ সব ধরনের খেলাধুলা ও বয়স্ক লোকেরা হাটা,শরীরচর্চা করে থাকে এছাড়া এই খেলার মাঠে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অনেক খেলোয়াড় নিয়মিত অনুশীলন করে৷ জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের অনুসরণ করে এলাকার একটি নির্দিষ্ট যুবসমাজ, কিশোর উক্ত মাঠে একটি নির্দিষ্ট স্থানে ক্রিকেট অনুশীলন করে৷

এলাকাবাসী সূত্রে আরোও জানা যায়, এই মাঠে একটি বহুতলা ভবন নির্মাণ প্রক্রিয়া চলছে৷ এখানে বহুতল ভবন নির্মাণ হলে পঞ্চাশ বছরের ঐতিহ্যবাহী খেলার মাঠে বিলুপ্ত হওয়ার পথে ৷ অত্র এলাকার সাধারণ মানুষের মতামত খেলার মাঠে বেদখল হলে মহাখালী এলাকার কিশোর,তরুণরা খেলাধুলা থেকে দূরে সরে গিয়ে বিভিন্ন অসামাজিক কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়বে৷ এমনকি মাদকের দিকে ঝুঁকে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে৷ এলাকাবাসীর দাবি প্রস্তাবিত স্থানে খেলার মাঠ ব্যতীত অনেক জায়গা রয়েছে যেখানে ভবন নির্মাণ করা সম্ভব৷

এদিকে,কাদের ইঙ্গিতে কিসের স্বার্থে খেলার মাঠে ভবন নির্মাণ করছে আমরা বোধগম্য নয়৷ দেশের সর্বোচ্চ কর্ণধার প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ আছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মাঠ বাধ্যতামূলক৷ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ উপেক্ষা করে,মেসার্স আজাদ ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্ট্রাকশন এর পক্ষ থেকে অদ্যকার সকালা বেলায় বেশ কিছু বহিরাগত লোক এসে মাঠের চতুর্পাশে সুতা ও লাল কাপড় দিয়ে একটি লেয়ার নির্মাণ করে৷ উক্ত ঘটনায় এলাকাবাসীর মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে,অত্র এলাকার যুব সমাজ,ছাত্রসমাজ,সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ সহ এই অশুভ কাজের নিন্দা জানাচ্ছে ৷

উক্ত মাঠ প্রসঙ্গে,অত্র এলাকার স্বনামধন্য,জননন্দিত,জনপ্রিয়,কমিশনার নাসির,সময় সংবাদ বিডি প্রতিনিধি:দেলোয়ার হোসেনকে মুঠোফোনে তিনি এ বিষয়ে বললে,উক্ত মাঠে আমি নিজে শৈশবে অনেক খেলাধূলা করেছি এলাকার বয়স্ক মানুষেরা মাঠে প্রতিদিন শরীরচর্চা ও কিশোর যুবকেরা নিয়মিত খেলাধুলা করে আসছে ৷ মাঠের জায়গা যাতে বেহাত না হতে পারে,সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে বিষয়টি অবগত করবেন বলে আমাদেরকে আশ্বাস দেন৷

এলাকাবাসীর বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়,গত ২৮-১১২০১৯ইং তারিখ মাঠ রক্ষার জন্য মানবিক আবেদন করেন মহাখালী দক্ষিণ পাড়া এলাকার চার থেকে পাঁচ শত মানুষের গণস্বাক্ষর,দশ পৃষ্ঠা একটি স্মারকলিপি, মহাপরিচালক স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বরাবর পাঠানো হয়৷

এছাড়াও উক্ত মাঠের বিষয় মহামান্য হাইকোর্টের একটি নির্দেশনা রয়েছে ৷

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here