রাতভর বৃষ্টি দেশের বিভিন্ন স্থানে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি-চরম দুর্ভোগে কর্মমুখী সাধারণ মানুষ

0


সময় সংবাদ বিডি -ঢাকা:রাতভর বৃষ্টিতে দেশের বিভিন্ন স্থানে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে, এতে চরম দুর্ভোগের শিকার হয়েছেন অফিসগামী কর্মমুখী সাধারণ মানুষ। এক কথায় এবছরের সেরা বৃষ্টি।

লক্ষ করা গেছে, রাতভর কখনও বৃষ্টি হালকা,কখনও মাঝারি আবার কখনও মুষলধারে বৃষ্টির শব্দে ক্লান্তির ঘুমে ছিল স্বস্তির নিঃশ্বাস।

কিন্তু সকালে ঘরের বাইরে বের হওয়া অফিসগামী ও কর্মমুখী মানু্ষদের কাছে সেই স্বস্তি একেবারেই যেন পরিণত হল অস্বস্তিতে।

রাজধানীতে আজ সোমবার (২০ জুলাই) মধ্যরাত থেকে সকাল প্রায় ৯টা পর্যন্ত থেমে থেমে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হয়েছে। এ বৃষ্টিতে রাজধানীর অনেক স্থানে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে অধিকাংশ  এলাকার প্রধান সড়কসহ অলিগলির বিভিন্ন স্থানে হাঁটুসমেত পানি জমে আছে। এতে যানবাহনে দেখা দিয়েছে ধীর গতি। ফলে সৃষ্টি হয়েছে তীব্র যানজট।

রাজধানীর বাড্ডা ডিআইটি প্রজেক্ট চার রোড থেকে তোলা ছবি। এইদিকে রাতের ভারী বৃষ্টিতে,কর্মব্যস্ত নগরীর সাধারণ মানুষ একদিকে যেমন চলাচলে অন্তহীন দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন। ঠিক এসময় এই দুর্ভোগের সুযোগ নিয়ে রিকশা,সিএনজি চালকরা যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ে মেতে উঠেছেন।

তবে বেলা যত বাড়ছে,ততই কমতে শুরু করেছে অনেক এলাকায় জমে থাকা পানি। আবার কোথাও কোথাও ড্রেনেজ ত্রুটি থাকায় সেগুলো মেরামত করতে দেখা গেছে সিটি করপোরেশন ও ওয়াসার কর্মীদের।

অন্যদিকে,আবহাওয়া অধিদফতর আজ সোমবার সকাল ৭টা থেকে পরবর্তী ছয় ঘণ্টার জন্য ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলেছে,আকাশ আংশিক মেঘলা থেকে মেঘলা থাকতে পারে। এ সময় হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

তাছাড়া,দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দর গুলো জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রাজশাহী,পাবনা,বগুড়া,টাঙ্গাইল,ময়মনসিংহ,ঢাকা,ফরিদপুর,যশোর,কুষ্টিয়া,খুলনা,বরিশাল,পটুয়াখালী,কুমিল্লা,নোয়াখালী,চট্টগ্রাম ও সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here