শিক্ষা বাঁচাতে শিক্ষকদের সমস্যার দ্রুত সমাধান করা জরুরী- শাজাহান আলম সাজু

0


 

নিজস্ব প্রতিবেদক, সময় সংবাদ বিডি-ঢাকা:স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের সাধারন সম্পাদক অধ্যক্ষ মোঃ শাজাহান আলম সাজু বলেছেন, করোনা ভাইরাসের প্রভাবে বাংলাদেশে উদ্ধুত শিক্ষা ব্যবস্থার সংকট এবং সমাধানের জন্য করণীয় বিষয়ক আমার লেখা আর্টিকেলটি বাংলাদেশে সর্বাধিক প্রচারিত দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন সহ বেশ কয়েকটি জাতীয় দৈনিক এবং জাগো নিউজ, দৈনিক শিক্ষা সহ জাতীয় অনেকগুলি অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। লেখাটি বাংলাদেশ প্রতিদিনেই শেয়ার হয়েছে প্রায় চার হাজার। সবমিলিয়ে লেখাটিতে হাজার হাজার লাইক ও শেয়ার হয়েছে। আমার লেখাটির তথ্য উপাত্ত দিয়ে বিভিন্ন টেলিভিশন ও পত্র পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হচ্ছে।

যতটুকু জানি শিক্ষা সংকট সমাধানে সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে আমার কতিপয় প্রস্তাবনা গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করছে। বিশেষ করে বেসরকারি শিক্ষার সাথে সংশ্লিষ্ট বেতন বিহীন শিক্ষকদের সমস্যা সমাধানের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। শুধু আলোচনা নয় অতিদ্রুত সমাধান করতে হবে। কারণ শিক্ষাকে বাঁচাতে হলে শিক্ষকদের আর্থিক সমস্যার দ্রুত সমাধান করতে হবে।

বিশেষ করে স্বতন্ত্র এবতেদায়ি মাদরাসা, অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ,এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের এমপিও বহির্ভূত সকল স্তরের শিক্ষক,এফিলিয়েশনভুক্ত সকল ননএমপিও শিক্ষক কর্মচারীদের সমস্যা সমাধান করতে হবে। স্ব-অর্থায়নে পরিচালিত কিন্ডার গার্টেনের শিক্ষকদের বিষয়টি এবং বর্তমান আর্থিক সংকটের কথা বিবেচনা করে এমপিওভুক্ত শিক্ষক কর্মচারীদের পুর্নাঙ্গ উৎসব ভাতার বিষয়টিও গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করতে হবে।

তিনি বলেন, তবে একথাও অস্বীকার্য গত১০/১১ বছরে বর্তমান শিক্ষাবান্ধব প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার শিক্ষা ক্ষেত্রে যে অনদান রেখেছে এর আগে বিগত ৩৮/৩৯ বছরে সব সরকার মিলেও তা করতে পারেনি।

বর্তমানে সরকারের আমলে শিক্ষা নীতি প্রণয়ন, বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারীদের জন্য ৫% ইনক্রিমেন্ট, ২০% বৈশাখী ভাতা,কল্যাণ এবং অবসর বোর্ডের জন্য ১৬৭৭ কোটি টাকা বিশেষ বরাদ্দ, বাড়ি ভাড়া ও মেডিকেল ভাতা বৃদ্ধি (যদিও সামান্য অতীতেও তাও কেউ করেনি), বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারীদের জাতীয় বেতন স্কেলে অন্তর্ভুক্তির ফলে বেতন দ্বিগুণ বৃদ্ধি, অবকাঠামোর ব্যাপক উন্নয়ন ২৬ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ,৫৩০ টি স্কুল ও কলেজ,০২টি মাদরাসা জাতীয়করণ বিশেষ ভাবে উল্লেখযোগ্য।
তবে বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারীদের সরকারি অনুরূপ বেতন ভাতা ও উৎসব ভাতা,বৈষম্যহীন শিক্ষা তথা শিক্ষা ব্যবস্থা জাতীয়করণ এ সরকারের আমলেই হবে ইনশাআল্লাহ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here