শিক্ষা মন্ত্রী-জুনে এসএসসি-জুলাই-আগস্টে এইচএসসির পরিকল্পনা

0


সময় সংবাদ বিডি-ঢাকা: সম্প্রতি সারাবিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের মহামারীর কারণে আর্থিক মানসিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হাজার ও লাখো কোটি মানুষ। একদিকে যেমন প্রিয়জন হারানোর বেদনা একই সঙ্গে আর্থিক সংকট আর এরই মধ্যে দেশের সবচেয়ে বড় ঘাটতি রয়েছে শিক্ষাখাতে।

এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমসাময়িক চলমান বাধা দূর করতে,আজ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি,তার পরিকল্পনা কথা ব্যক্ত করেছেন। দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হতে পারে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী।

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নেয়া হতে পারে বলে পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। জুলাই-আগস্ট মাসে নেয়া হতে পারে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। আজ মঙ্গলবার নতুন বছরে বই উৎসবসহ শিক্ষা সংক্রান্ত সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আয়োজিত ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন দীপু মনি।

শিক্ষামন্ত্রী এসময় বলেন, ফেব্রুয়ারি থেকে এপ্রিল এই সময়কালে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ক্লাসরুমে পড়ানোর উদ্যোগ নেবো,সেই চেষ্টা করছি। পরিস্থিতি যদি অনুকূলে থাকে ২০২১ সালের জুন নাগাদ এই পরীক্ষা নেওয়ার চেষ্টা করবো। স্কুলগুলো খুলে দেওয়ার চেষ্টা করবো। দশম ও দ্বাদশ শ্রেণি যেন নতুন সিলেবাসে ক্লাস করে পরীক্ষা দিতে পারে।

এসময় দীপু মনি আরোও জানান,এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ফেব্রুয়ারি থেকে মে মাস পর্যন্ত হয়তো ক্লাসরুমে নিয়ে ক্লাস করানো হবে। কাস্টমাইজ সিলেবাস ৩১ জানুয়ারির মধ্যে জানিয়ে দিতে পারবো। জুলাই-আগস্ট নাগাদ এই পরীক্ষা গ্রহণের আশা প্রকাশ করছি। যদি করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকে তাহলে ফেব্রুয়ারি থেকে মে পর্যন্ত ক্লাস হতে পারে।

এ সময়ে পিছিয়ে পড়া সিলেবাস শেষ করা হতে পারে। এসময়, ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো.জাকির হোসেন,মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো.মাহবুব হোসেন,কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো.আমিনুল ইসলাম খান, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সৈয়দ মো.গোলাম ফারুক।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here