শুধু সৌদি আরবে বসবাসরতরাই হজে অংশ নিতে পারবেন-অন্য কোনো দেশ থেকে যেতে পারবে না কেউ

0


সময় সংবাদ বিডি ঢাকা: এবার সৌদি আরবে সীমিত আকারে হবে হজ। বাংলাদেশ থেকে যেতে পারবেন না কেউ, শুধু তাই নয়-কোনো দেশ থেকেই, হজে যেতে পারবেন না কেউ। করোনার প্রাদুর্ভাব রোধে এবার শুধুমাত্র সৌদি আরবের নাগরিক এবং দেশটিতে বসবাসকারী বিদেশি নাগরিকরা ছাড়া, অন্য কেউ আসন্ন হজে অংশ নিতে পারবেন না।

প্রাণঘাতী ভাইরাস করোনা মহামারির কারণে এ বছর সীমিত পরিসরে হজ আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব। শুধু সৌদি আরবে বসবাসরতরাই হজে অংশ নিতে পারবেন। অন্য কোনো দেশ থেকেই হজে যেতে পারবেন না কেউ। অর্থাৎ বাংলাদেশসহ অন্যান্য সকল দেশ থেকে এবার হজযাত্রা বন্ধ থাকবে। খবর আরব নিউজ ও আল জাজিরা।

সোমবার দেশটির হজ ও উমরাহ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে। প্রতি বছর ২৫ লাখের মতো ধর্মপ্রাণ মুসলিম হজ পালন করেন। বাংলাদেশ থেকে এ বছর এক লাখ ৩৭ হাজার হজ যাত্রী যাওয়ার কথা ছিল। হজে যেতে ইচ্ছুক ৬৭ হাজার মানুষ ইতিমধ্যে নিবন্ধন করেছেন।

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের মহামারির কারণে এ বছর হজ নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়। বেশ কয়েকটি দেশ ইতোমধ্যে হজে অংশ না নেওয়ার ঘোষণাও দেয়। তবে সৌদি আরবের পক্ষ থেকে গত মার্চে উমরাহ পালন সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হলেও হজ নিয়ে আনুষ্ঠানিক কোনও সিদ্ধান্ত সোমবারের আগে জানানো হয়নি।

অবশেষে হজ নিয়ে সৌদি আরব সিদ্ধান্ত জানায়। সীমিত আকারে এবারের হজ আয়োজনের সিদ্ধান্তের কারণে সৌদিতে অবস্থানরতরা ছাড়া বাংলাদেশসহ অন্যান্য সকল দেশ থেকে এবার কেউ হজে যেতে পারবেন না। ঘোষণায় বলা হয়, শুধু সৌদি আরবে বসবাসরতরাই এবারের হজে অংশ নিতে পারবেন।

সৌদি আরবের হজ মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে সৌদি প্রেস এজেন্সির এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিভিন্ন দেশের মুসলিম যারা বর্তমানে সৌদি আরবে বসবাস করছেন ওইসব সীমিত সংখ্যক হাজিদের নিয়েই এবারের হজ অনুষ্ঠিত হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়,বিশ্বজুড়ে করোনভাইরাসের সংক্রমণ দিন দিন বাড়ছে। এমনকি এখন পর্যন্ত কোনো ভ্যাকসিন বা প্রতিষেধক বের হয়নি। এই অবস্থায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আসা লাখো হাজিদের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা কঠিন হয়ে পড়বে। সে জন্যেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৩০ জুলাই অর্থাৎ ৯ জিলহজ হজ অনুষ্ঠিত হতে পারে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here