সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে রাস্তায় নেমেছে মানুষ-বাড়ছে করোনার ঝুঁকিও

0


জসিম ভুঁইয়া,সময় সংবাদ বিডি- ঢাকা: সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে রাস্তায় নেমেছে মানুষ জনসমাগম বাড়ায় রাজধানীতে বাড়ছে করোনা ঝুঁকিও। প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের পরিস্থিতির উন্নতির লক্ষণ না থাকলেও দিনে দিনে রাজধানীতে বাড়ছে জনসমাগম। সেইসঙ্গে সড়কেও বাড়ছে যানবাহন। মূলত বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও গার্মেন্টস খুলে দেওয়ায় এ জনসমাগম বেড়েছে। মানুষের ঠাসাঠাসি কাঁচা বাজারেও। এতে করে করোনা ঝুঁকিও বাড়ছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বুধবার (২৯ এপ্রিল) রাজধানীর সড়ক ঘুরে এমন চিত্রই দেখা যায়। শুধু গণপরিবহন ছাড়া সড়কে সবধরনের গাড়িই চলছে। প্রধান সড়কগুলোতে ব্যক্তিগত গাড়ির পাশাপাশি রিকশারও অাধিপত্য। লেগুনায়ও যাত্রী পরিবহন করছে। এতে মে মাসে করোনা ভাইরাস ব্যাপকহারে সংক্রমণ বাড়তে পারে বলে অাশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আজ বুধবার দুপুরে রাজধানীর বিশ্বরোড উত্তরা,বনানী, বিজয় সরণী, কুড়িল, নতুন বাজার, রামপুরা, মগবাজার, মতিঝিল, মালিবাগ মোড়, নয়াপল্টন সরোজমিনে বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এমন চিত্র দেখা যায়। সড়কের কোথাও কোথাও সিগন্যালে মৃদু যানজট,রয়েছে গাড়ির চাপ। ফুটপাতেও মানুষের ভিড়। শারীরিক দূরত্বের প্রতি কারও কোনো মনযোগ নেই।

শুধু তাই নয় রাজধানীর বনানী কাঁচা বাজার ও নতুন বাজারসহ কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা যায়, এমন চিত্র বাজারে মানুষের প্রচুর ভিড়। শারীরিক দূরত্ব বজায়ের কোনো সুযোগই নেই বাজারগুলোতেও।

সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কেন রাস্তায় নেমেছেন কেনো? এ কথা জিজ্ঞেস করলে পথচারীরা তার উওরে,বিভিন্ন অজুহাত কথা বলে ফাঁকি দিয়ে নিজ কর্মস্থলে কিংবা বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিতে চলে যাচ্ছেন।

আবার কেউ কেউ তোয়াক্কাই করছেন, না প্রাণঘাতী এই করোনা ভাইরাসের চলমান ভয়াল পরিস্থিতিকে। ঠিক এরকম দৃশ্য দেখে দেশবাসী অনেকেই হতাশ। এরই মধ্যে কেউ কেউ বলছেন, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। করোনা আতঙ্কের মধ্যেও তাদের অফিস খুলেছে। তাই বাধ্য হয়ে আতঙ্ক ও ভয় নিয়েই অফিসে যেতে হচ্ছে। আবার কেউ বলছেন, বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থায় চাকরি করি। অফিসের জরুরি কাজে বের হতে হয়েছে।

আবার কেউবা বা বলেছেন ব্যাচেলর মানুষ, বাসায় ফ্রিজ নেই। তাই ঘনঘন বাজার করতে হয়। এখানে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে বাজার করার কোনো সুযোগই নেই, তাই মনের মধ্যে সবসময় একটা ভয় ও আতঙ্ক কাজ করে। তারপরও বের হতে হয় পেটের তাগিদে।

এক কথায় বলতে গেলে,মানুষ শারীরিক দূরত্ব মানছেন না- এই সুশীল সমাজের অনেক মানুষ রয়েছে তাদের মধ্যে সচেতনতার অনেক অভাব । তাই সবাইকে বিশেষভাবে অনুরোধ করা যাচ্ছে সবাই জনসমাগম এড়িয়ে চলুন সরকারের নির্দেশনা মেনে চলুন, আপনার সচেতনতাই রক্ষা করতে পারে এই প্রাণঘাতী করোনার ভয়াবহ ছোবল থেকে- আপনাকে, আমাকে আমাদের সবাইকে‌।

জনস্বার্থে :-সময় সংবাদ বিডি ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here