সাদামাটা জীবন যাপন করেন দক্ষিন ছাত্রলীগের সভাপতি:মেহেদি হাসান

0


স্টাফ রিপোর্টারঃ সময় সংবাদ বিডি ঢাকা: উচ্চ আদর্শ ও সাদামাটা,জীবন যাপন এই হোক তোমাদের আদর্শ’ এমন উক্তিটি ছাত্রলীগের উদ্দেশে বলেছিলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মূলত নেতাদের জীবন হোক আর দশজনের মতো যেন তারা সাধারণ মানুষদের সঙ্গে মিশতে পারে। তাদের কষ্ট বুঝতে পারে।

মো.মেহেদি হাসান। মহানগর দক্ষিন ছাত্রলীগের সভাপতি তিনি। ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠন হওয়ায় হাতে অপার ক্ষমতাও রয়েছে তার। তবে এতোকিছুর মাঝেও সাদামাটা জীবনযাপন করছেন ছাত্রলীগ দক্ষিনের এই নিয়ন্ত্রক। তিনি নেতা হওয়ার আগে যেমন ছিলেন এখন তেমনটিই আছেন।

সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে ছাত্রলীগ কর্মী থেকে শুরু অনেকের মধ্যে তাকে নিয়ে আগ্রহের শেষ নেই। তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও ব্যাপক কৌতূহল। তবে মেহেদি এ ব্যাপারে একেবারেই নীরব। রাতারাতি সেলিব্রেটি হওয়ার কোন ইচ্ছে নেই তার। তিনি অত্যন্ত সাদামাটা জীবন যাপনে অভ্যস্ত। নেতা হওয়ার পরও তিনি বদলাননি নিজেকে।

মেহেদির বন্ধুরা জানান,মেহেদি বিনয়ী ও সদালাপী। প্রতিদিন ছাত্রলীগের অনেক নেতা-কর্মী ও দর্শনার্থী সংগঠন এবং ব্যক্তিগত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তার সঙ্গে কথা বলতে আসেন। মনোযোগ দিয়ে তিনি তাদের কথা শোনেন এবং প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেন। ছাত্রলীগের সর্বস্তরের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে সুন্দর ও সাবলীল আচরণ করেন। তিনি এখনো সিএনজি দিয়ে সাদামাটা ভাবেই চলাচল করেন। দলিয় প্রোগ্রামে শুধু বাইক ব্যবহার করেন। এ ব্যাপারে মতামত জানতে চাইলে সবুজবাগ থানা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এবং থানা ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী সাহেদী হোসেন বলেন,মহানগর দক্ষিন ছাত্রলীগের সংগ্রামী সভাপতি মেহেদী হাসান ভাই একজন পরিচ্ছন্ন ছাত্রনেতা তার মেধা এবং বিচক্ষনতায় মহানগর দক্ষিন ছাত্রলীগকে এক অনন্য জায়গায় নিয়েছেন।

তিনি খুবই সাদামাটা জীবন যাপন পছন্দ করেন একেবারেই নিরঅহংকার কর্মীবান্ধব নেতা। আমরা তার সাথে রাজনিতী করে গর্বিত,তিনি সর্বদা একজন যোগ্য অভিভাবকের ভূমিকায় সর্বদা কর্মীদের পাশে থাকেন ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here